Cric Gossip

মালদ্বীপের পানশালায় ঝগড়া, মারামারিতে জড়ালেন অস্ট্রেলিয়ার দুই সুপারস্টার ক্রিকেটার

অস্ট্রেলীয় ব্যাটসম্যান ডেভিড ওয়ার্নার এবং ধারাভাষ্যকার মাইকেল স্লেটার সম্প্রতি মালদ্বীপের একটি বারে কুৎসিত ঝগড়ায় জড়িত ছিলেন বলে জানা গেছে। অস্ট্রেলীয় খেলোয়াড়, সাপোর্ট স্টাফ এবং ধারাভাষ্যকারযারা সম্প্রতি স্থগিত হওয়া ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) ২০২১ এর অংশ ছিলেন। তারা বর্তমানে মালদ্বীপে কোয়ারান্টিন করছেন। ভারত থেকে ফ্লাইটের উপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞার কারণে, অসি খেলোয়াড় এবং সাপোর্ট স্টাফরা বর্তমানে মালদ্বীপে রয়েছেন সেখান থেকে তারা তাদের নিজ নিজ দেশে ফিরে যাবেন।

এই সপ্তাহের শুরুতে আইপিএল ২০২১ স্থগিত হওয়ার পরে অস্ট্রেলিয়া এবং অন্যান্য বিদেশী খেলোয়াড় এবং কর্মীদের মালদ্বীপে থাকার জন্য চার্টার্ড ফ্লাইটের ব্যবস্থা করেছিল বিসিসিআই। ওয়ার্নার এবং স্লেটার উভয়ই বর্তমানে গ্রীষ্মমন্ডলীয় দ্বীপপুঞ্জের তাজ কোরাল রিসর্টে রয়েছেন এবং অস্ট্রেলিয়ায় ফিরে আসার আগে দুই সপ্তাহের জন্য কোয়ারেন্টাইন থাকবেন।

দ্য সানডে টেলিগ্রাফের একটি প্রতিবেদন অনুযায়ী, ওয়ানার এবং স্লেটার তাদের হোটেলের বারে উত্তপ্ত তর্কাতর্কি এবং শারীরিক বিবাদে জড়িয়ে পড়েছিলেন। তবে, উভয়ই এই প্রতিবেদন অস্বীকার করেছে এবং জানিয়েছেন যে তাদের মধ্যে কিছুই ঘটেনি। স্লেটার এটিকে গুজব বলে উড়িয়ে দিয়েছেন ও বলেছেন তিনি এবং ওয়ার্নার “দুর্দান্ত বন্ধু”, তাদের মধ্যে লড়াই হওয়ার সম্ভাবনা একেবারে শূন্য। ওয়ার্নারও স্লেটারের সাথে তর্কের খবর উড়িয়ে দিয়েছেন। “আমি জানি না আপনারা এই জিনিসগুলি কোথা থেকে পান। কোনো প্রমাণ ছাড়া এগুলো লেখা ঠিক নয়” তিনি বলেছিলেন।

ওয়ার্নারকে আইপিএল ২০২১ এর সময় সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ অধিনায়কত্ব থেকে বরখাস্ত করেছিল এবং কেন উইলিয়ামসন তার জায়গায় স্থলাভিষিক্ত হয়েছিলন। তিনি আরও ৩৭ জন অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটার এবং সাপোর্ট স্টাফের সাথে মালদ্বীপে রয়েছেন, ভারতের উপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা ১৫ ই মে শেষ হবে যার পরে খেলোয়াড়রা দেশে ফিরবেন।

আরও পড়ুন

Back to top button