Cric Gossip

করোনা আক্রান্ত হয়ে সচিনের হাসপাতালে ভর্তি হওয়া উচিত হয়নি! কেন এমন বললেন মহারাষ্ট্রের মন্ত্রী?

কিছুদিন আগে করোনা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালেও ভর্তি হয়েছিলেন ক্রিকেট গড সচিন তেন্ডুলকর। নিজে টুইট করে এই খবর ভক্তদের জানিয়েছিলেন তিনি। ওয়ার্ল্ড রোড সেফটি সিরিজে খেলতে গিয়ে করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন তিনি। হাসপাতালেও ভর্তি হয়েছিলেন। তবে মহারাষ্ট্রের মন্ত্রী আসলাম শেখ মঙ্গলবার ক্রিকেট আইকন শচীন টেন্ডুলকারের হাসপাতাল থেকে সম্প্রতি ছাড়া পাওয়ার পর ডিসচার্জ পোস্ট নিয়ে বিরুপ মন্তব্য করে বিতর্ক সৃষ্টি করেছেন।

তিনি বলেন, গুরুতর কোভিড উপসর্গ না থাকা সেলিব্রিটিদের মুম্বাইয়ের হাসপাতালের শয্যা দখল করা উচিত নয়। তাঁর এই মন্তব্যকে ভাল ভাবে নিচ্ছেন না শচীন অনুরাগীরা। তাদের মতে, প্রয়োজন বোধ করেছেন বলেই সচিনরা হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। “সেলিব্রিটিরা যারা লক্ষণহীন তাদের বাড়িতে চিকিৎসা নেওয়া উচিত, হাসপাতালে শয্যা দখল করা উচিত নয়। অক্ষয় কুমার, শচীন তেন্ডুলকরের মতো কিছু সেলিব্রিটিকে হাসপাতালে ভর্তি করার প্রয়োজন ছিল না” এএনআই-এর উদ্ধৃতি দিয়ে শেখ বলেন।

আসলাম শেখ আরও বলেন, “অভাবীদের জন্য শয্যা ছেড়ে দেওয়া উচিত।” রায়পুরে রোড সেফটি ওয়ার্ল্ড সিরিজ চ্যালেঞ্জে অংশ নেওয়া টেন্ডুলকার ২৭ শে মার্চ ভাইরাসের করোনা পজিটিভ হন। ইরফান এবং ইউসুফ পাঠান এবং এস বদ্রীনাথও কিছুদিনের মধ্যে পজিটিভ ফলাফল পান। মহারাষ্ট্রে বর্ধিত লকডাউনের কথা বলার মধ্যে শেখ বলেন, করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে সরকার নতুন করে বিধিনিষেধ জারি করবে। মহারাষ্ট্রে রবিবার ৬৩,২৯৪ টি সংক্রমণের খবর পাওয়া গেছে, মহামারী শুরু হওয়ার পর এটি একদিনের সর্বোচ্চ সংখ্যা। যাইহোক, সোমবার মামলা উল্লেখযোগ্যভাবে কমে (৫১৭৫১)।

আরও পড়ুন

Back to top button