Cric Gossip

Pakistani Cricketer: ঠেলাগাড়িতে ‘চানা’ বিক্রি করছেন পাক ক্রিকেটার ওয়াহাব রিয়াজ! রইল ভিডিও

উল্লেখ্য, সমস্ত বিষয়টি মজার ছলে করলেও ওয়াহাব রিয়াজ ঘটনাটি নিজের ছেলেবেলার স্মৃতিচারণের উদ্দেশ্যে করেছেন বলে জানা গেছে। পাকিস্তানের ৩৬ বছর বয়সী ওয়াহাব, দেশের হয়ে ২৭টি টেস্ট, ৯১টি ওয়ান ডে এবং ৩৬টি টি-টোয়েন্টি খেলেছেন। তবে ২০১৮ সালের পর থেকে আর জাতীয় দলের জার্সি গায়ে তাঁকে দেখা যায়নি।

Advertisement

জাতীয় দলে সুযোগ না পেয়ে ঠেলাগাড়িতে চানা বিক্রি করছেন পাক পেসার! সাম্প্রতিক সময়ে পাকিস্তানের অন্যতম সেরা পেসার হিসেবে ধরা হয় ওয়াহাব রিয়াজকে। এক সময় দেশের জার্সিতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট মাতিয়েছেন এই পেস বোলার। তবে বিভিন্ন লিগে খেললেও দীর্ঘদিন জাতীয় দলের হয়ে খেলার সুযোগ সুযোগ পাচ্ছেন না ওয়াহাব রিয়াজ। এবার শেষমেশ রাস্তার পাশে ঠেলা গাড়িতে করে ‘চানা’ বিক্রি শুরু করলেন পাকিস্তান তারকা পেস বোলার। যা বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্রিকেটপ্রেমীদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে।

Advertisement

গত সোমবার ওয়াহাব রিয়াজ নিজের সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টে নিজেই নিজেকে ‘চানা বিক্রেতা’ হিসেবে দাবি করে একটি ভিডিও পোস্ট করেন। পোস্টের ক্যাপশনে তিনি লেখেন, ‘আজকের জন্য আপনাদের চানাওয়ালা চাচা। আপনাদের অর্ডার পাঠান, কি বানাব এবং কত টাকার বানাব বলুন।’ পাকিস্তানের তারকা ক্রিকেটারের এমন কাণ্ড দেখে তো সকলে হা। ক্রিকেট ভক্তদের পাশাপাশি পাকিস্তানের ক্রিকেটারেরাও ওয়াহাবের এই ভিডিওতে কমেন্ট করেন। পাকিস্তানি ক্রিকেটার আহমেদ শেহজাদ ওয়াহাবের ভিডিও বার্তায় লেখেন, ‘ওয়াহাব কাকা, আলিও চানা খেতে চায়।’

Advertisement

উল্লেখ্য, সমস্ত বিষয়টি মজার ছলে করলেও ওয়াহাব রিয়াজ ঘটনাটি নিজের ছেলেবেলার স্মৃতিচারণের উদ্দেশ্যে করেছেন বলে জানা গেছে। পাকিস্তানের ৩৬ বছর বয়সী ওয়াহাব, দেশের হয়ে ২৭টি টেস্ট, ৯১টি ওয়ান ডে এবং ৩৬টি টি-টোয়েন্টি খেলেছেন। তবে ২০১৮ সালের পর থেকে আর জাতীয় দলের জার্সি গায়ে তাঁকে দেখা যায়নি। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে ওয়াহাব রিয়াজ নিজেই জানান যে তিনি সম্ভবত ২০২৩ বিশ্বকাপের পরেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় জানাবেন। তবে তার আগে দেশের জার্সিতে কাম ব্যাক করতে সর্বোচ্চ চেষ্টা করবেন তিনি। ওয়াহাব রিয়াজের এই কর্মকাণ্ড বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্রিকেটপ্রেমীদের কাছে মজার বিষয়বস্তু হয়ে দাঁড়িয়েছে।

Related Articles

Back to top button