Connect with us

Cric Gossip

International cricket: এই ৩ তারকা ক্রিকেটার, যারা বিবাহের আগে পিতা হয়েছেন

Advertisement
Advertisement

কথায় আছে “প্রেম এবং যুদ্ধে সবকিছু সত্য”। প্রেমের টানে দূরদূরান্ত থেকে প্রেমিক কিংবা প্রেমিকাকে ছুটে আসার ঘটনা হরহামেশাই সোশ্যাল মিডিয়ায় লক্ষ্য করা যায়। আমার প্রেমের জন্য আত্মঘাতীও কোন বড় বিষয় নয়। বিশ্ব ক্রিকেটে এমন অনেক নামকরা ক্রিকেটার রয়েছেন যারা বিবাহের পরেও বিবাহ-বহির্ভূত সম্পর্কে লিপ্ত হয়েছেন। এমনকি বিবাহ না করে সন্তানের পিতা হয়েছেন। চলুন আজ জেনে নেওয়া যাক এমন তিনজন ক্রিকেটার সম্পর্কে যারা বিবাহের পূর্বে বাবা হয়েছেন-

Advertisement

হার্দিক পান্ডিয়া: এই তালিকায় রয়েছেন ভারতীয় অলরাউন্ডার হার্দিক পান্ডিয়া। ব্যাট এবং বল হাতে মাঠ কাঁপানো অলরাউন্ডার কখন বিবাহ করেছিলেন সে বিষয়ে সঠিক তথ্য নেই কারো কাছে। তবে ঘটা করে এঙ্গেজমেন্ট করেছিলেন হার্দিক পান্ডিয়া। এনগেজমেন্টের ঠিক দুমাস পরে বেবি বাম্পের ছবি শেয়ার করেন হার্দিক পান্ডিয়ার স্ত্রী নাতাশা। বর্তমানে হার্দিক পান্ডিয়া এক পুত্র সন্তানের পিতা। তার একমাত্র পুত্রের নাম অগস্থ্য।

২. জো রুট: জো রুটের স্ত্রী ক্যারি কটরেলে। ইয়র্কশায়ারে খেলার সময় ক্যারি কটরেলের সঙ্গে ইংল্যান্ডের টেস্ট দলের অধিনায়কের আলাপ হয়। এরপর তাদের মধ্যে বন্ধুত্ব বাড়তে থাকে। শুরু হয় ডেটিং। বাড়তে থাকে সম্পর্কের পরিধি। ২০১৬ সালে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে রুট প্রেম নিবেদন করেছিলেন। রাজি হয়ে যান ক্যারি। ২০১৬ সালের প্রেম নিবেদনের পর আরও দুই বছর লিভিং করেন ওঁরা। বিয়ের আগেই ২০১৭ সালে জো রুট ও ক্যারির প্রথম পুত্র সন্তানের জন্ম হয়।প্রথম বাচ্চা হওয়ার এক বছর পর রুট ও ক্যারি বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নেন। ২০১৮ সালের ১লা ডিসেম্বর বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন ইংলিশ ক্রিকেটার জো রুট।

৩. ডেভিড ওয়ার্নার: সর্বদা সংবাদ শিরোনামে থাকতে প্রস্তুত অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের ডেভিড ওয়ার্নার। বিনোদনের ক্ষেত্রে হোক কিংবা ব্যাট হাতে মাঠ কাপানো সব ক্ষেত্রে পারদর্শী তিনি। ২০১৪ সালে ডেভিড ওয়ার্নারের বহুদিনের বান্ধবী ক্যান্ডিস কন্যাসন্তানের জন্ম দেন। এর পর ২০১৫ সালে বিয়ে সেরে ফেলেন অস্ট্রেলিয়ার তারকা ওপেনার ওয়ার্নার। ডেভিড ওয়ার্নার বর্তমানে তিন কন্যার পিতা। কন্যা এবং স্ত্রী সমেত সোশ্যাল মিডিয়াতে সর্বদাই বিনোদন দিয়ে থাকেন ডেভিড ওয়ার্নার।

Advertisement

#Trending

More in Cric Gossip