Cricket NewsInternational Cricket

Hasan Ali: বাবর আজমের নিশানায় হাসান আলী, বন্ধু হাসানের পাশে দাঁড়ালেন শাদাব খান

ম্যাচের গুরুত্বপূর্ণ সময়ে সেই ক্যাচ ফেলে দেন হাসান আলী। আর তারপরেই পরপর তিন বলে তিনটি ছক্কা মেরে জয়ের জন্য প্রয়োজনীয় রান তুলে নেন ম্যাথু ওয়েড। এদিকে গতকাল বল হাতে হাসান আলি বিনা উইকেটে ৪৪ রান খরচ করেন।

Advertisement

চলতি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দ্বিতীয় সেমিফাইনালে অস্ট্রেলিয়ার মুখোমুখি হয়েছিল পাকিস্তান। যেখানে ১৭৭ রানের বিশাল লক্ষ্যমাত্রা তাড়া করে ম্যাচ জেতে অস্ট্রেলিয়া। অস্ট্রেলিয়ার হয়ে সেই ম্যাচের জয়ের নায়ক হন মার্কাস স্টয়নিস এবং ম্যাথু ওয়েড। অস্ট্রেলিয়া ৫ উইকেট হারানোর পরেও এই দুই ব্যাটসম্যানের বিস্ফোরক ইনিংসের ওপর ভর করে এক ওভার বাকি থাকতে জয়ের জন্য প্রয়োজনীয় রান তুলে নেয়। কিন্তু কাজটা মোটেও সহজ ছিল না অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটসম্যানদের জন্য। শেষ দুই ওভারে জয়ের জন্য অস্ট্রেলিয়ার প্রয়োজন ছিল ২২ রান।

Advertisement

সেই সময় বল হাতে বোলিং করতে আসেন পাকিস্তানের বিধ্বংসী বোলার শাহীন শাহ আফ্রীদি। সে সময় ব্যাট হাতে রণ মূর্তি ধারণ করেছিলেন অস্ট্রেলিয়ার উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান ম্যাথু ওয়েড। শাহীন শাহ আফ্রীদি বলে আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরত যেতে পারতেন ম্যাথু ওয়েড। শাহীন শাহ আফ্রিদির বলে বড় শট খেলতে যান ম্যাথু ওয়েড। কিন্তু বল সরাসরি পৌঁছে যায় বাউন্ডারি সীমানায় দাঁড়িয়ে থাকা ফিল্ডার হাসান আলীর হাতে। ম্যাচের গুরুত্বপূর্ণ সময়ে সেই ক্যাচ ফেলে দেন হাসান আলী। আর তারপরেই পরপর তিন বলে তিনটি ছক্কা মেরে জয়ের জন্য প্রয়োজনীয় রান তুলে নেন ম্যাথু ওয়েড। এদিকে গতকাল বল হাতে হাসান আলি বিনা উইকেটে ৪৪ রান খরচ করেন।

Advertisement


বল হাতে ৪৪ রান এবং গুরুত্বপূর্ণ সময়ে ক্যাচ মিস করে পাকিস্তানকে একাই ডুবিয়ে দেন হাসান আলি। আর তার পরপরই পাক সমর্থকদের আক্রোশের মুখে পড়েন পাকিস্তানি এই ক্রিকেটার। পাকিস্তানের অধিনায়ক বাবর আজম সেই আগুনে ঘি ঢেলে দেন। তিনি ম্যাচ পরাজয়ের কারণ হিসেবে পুরোপুরিভাবে হাসান আলীকে দায়ী করেন। আর তার পরপরই হাসান আলিকে নিয়ে পুরো পাকিস্তান যেন রাস্তায় নেমে আসে। সরাসরি তার ধর্ম এবং পরিবার নিয়ে একাধিক প্রশ্ন ওঠে সোশ্যাল মিডিয়ায়। কিন্তু হাসান আলীর সতীর্থ এবং প্রিয় বন্ধু শাদাব খান অসময়ের বন্ধুর পাশে দাঁড়িয়েছেন। তিনি বলেন, একজনের ভুলে ম্যাচে জয় পরাজয় হয়েছে বলা অন্যায়। ইতিপূর্বে ও পাকিস্তানের জন্য দুর্দান্ত খেলা করেছে। তার এই বিপদে তার পাশে থাকা সতীর্থ হিসেবে আমার দায়িত্ব। আর আমি মনে করি পুরো পাকিস্তানি সমর্থকদেরও এই কাজ করা উচিত। যাতে ভবিষ্যতে ওর কাছ থেকে আমরা আরো ভালো কিছু পেতে পারি।

Related Articles

Back to top button