Cric GossipCricket NewsInternational Cricket

T20 World Cup Final: স্কুলের বন্ধই আজ ২২ গজে প্রতিপক্ষ! ফাইনালে মুখোমুখি মিচেল-স্টোনিস

দুই স্কুলের বন্ধু আজ ২২ গজের প্রতিপক্ষ। আগে তারা একই সাথে ২২ গজের লড়াই লড়ত। কিন্তু আজ তারা একে অপরের প্রতিপক্ষ। উল্লেখ্য ১২ বছর আগে অস্ট্রেলিয়ার অলরাউন্ডার মার্কাস স্টোইনিস এবং নিউজিল্যান্ডের ব্যাটসম্যান ড্যারিল মিচেল একই স্কুলে পড়াশোনা করতেন। অর্থাৎ কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে লড়াই করতেন এই দুই ক্রিকেটার।

Advertisement

দুই স্কুলের বন্ধু আজ ২২ গজের প্রতিপক্ষ। আগে তারা একই সাথে ২২ গজের লড়াই লড়ত। কিন্তু আজ তারা একে অপরের প্রতিপক্ষ। উল্লেখ্য ১২ বছর আগে অস্ট্রেলিয়ার অলরাউন্ডার মার্কাস স্টোইনিস এবং নিউজিল্যান্ডের ব্যাটসম্যান ড্যারিল মিচেল একই স্কুলে পড়াশোনা করতেন। অর্থাৎ কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে লড়াই করতেন এই দুই ক্রিকেটার।

Advertisement

জানা যায়, ২০০৯-তে স্কারবরোর হয়ে ফার্স্ট গ্রেড প্রিমিয়ারশিপ জিতেছিলেন ড্যারেল মিচেল এবং মার্কাস স্টোইনিস। সেইসময়ে তাদের দুজনের কোচ ছিলেন জাস্টিন ল্যাঙ্গার। ঘটনাচক্রে তিনিই অস্ট্রেলিয়ার বর্তমান হেড কোচ। স্কুলের টিমকে জেতাতে একসাথে লড়াই করতেন তারা। স্কুলের দলকে জেতাতে অবদানও রয়েছে তাদের। স্কুলের হয়ে খেলার সময় সেমিফাইনালে স্টোইনিস ১৮৯ রান করেছিলেন। অন্যদিকে মিচেল ফাইনালে ৪ উইকেট নিয়ে ২৬ রান করেছিলেন।

Advertisement

দীর্ঘ পাঁচ বছর একসাথে স্কুলের দলে ক্রিকেট খেলেছিলেন এই দুই ক্রিকেটার। এরপর প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটে যুক্তহন দুজনেই। মেলবোর্নে গিয়ে ভিক্টোরিয়ায় যোগ দেন স্টোইনিস। অন্যদিকে অস্ট্রেলিয়া ছেড়ে নিউজিল্যান্ডে চলে যান মিচেল। সেখানে গিয়ে নর্দার্ন ডিস্ট্রিক্টসের হয়ে খেলা শুরু করেন।

এবছর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সেমিফাইনালে মিচেল ৪৭ বলে ৭২ রান করেন। যার সুবাদে ইংল্যান্ডকে হারিয়ে ফাইনালে পৌঁছায় নিউজিল্যান্ড। অন্যদিকে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ম্যাচের শেষের দিকে ৩১ বলে ৪০ করেন স্টোইনিস। এবছর আইসিসি টি-টোয়েন্টিতে দুজনেই সেমিফাইনালে অপরাজিত থেকে মাঠ ছেড়েছেন। আজ ২২ গজে এই দুই বন্ধুর টক্কর জোরদার হতে চলেছে সেই নিয়ে কোন সন্দেহই নেই। রবিবার বিশ্বকাপ ফাইনালে শেষ পর্যন্ত কি হয় সেইদিকেই চোখ রাখছে গোটা ক্রিকেটবিশ্ব।

Related Articles

Back to top button