Connect with us

Cric Gossip

Virender Sehwag: ‘জীবনে সবচেয়ে ভয় পেতাম এই বোলারকে, ম্যাচের আগের রাতে ঘুম হত না,’ বললেন বীরেন্দ্র শেওয়াগ

Advertisement
Advertisement

‘মুলতান কা সুলতান’ সগৌরবে স্বীকার করলেন তিনি তার জীবনে একজন বোলারের বল খেলতে সবচেয়ে বেশি ভয় পেতেন। তিনি আর যে রনকের ইউটিউব সাক্ষাৎকারে এমনই মন্তব্য করেছেন। বিশ্বের বিধ্বংসী ওপেনার হিসেবে খ্যাত বীরেন্দ্র শেওয়াগ বলেন, যেদিন জানতাম যে এই বিধ্বংসী বোলারের বিপক্ষে আমাকে খেলতে হবে, তার আগের দিন রাত্রে আমার ঘুম হত না। এমনকি এই বোলারের বল বুঝতে আমার ক্রিকেট জীবনের অর্ধেকের কাছাকাছি সময় লেগেছে। হ্যাঁ প্রায় ৭ থেকে ৮ বছর সময় লেগেছে শ্রীলঙ্কান বোলার মুত্তিয়া মুরালিধরনকে বুঝতে। তার বল পড়তে পারাই আমার কাছে বড় চ্যালেঞ্জিং ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছিল। উল্লেখ্য, ২২ গজের পিচে পরম প্রতাবে প্রহার করেছেন একের পর এক বিশ্বসেরা বোলারকে। নতুন বলকে কিভাবে পুরনো করা প্রয়োজন সেটি বীরেন্দ্র শেওয়াগ সঠিকভাবে চিনিয়েছে ভারতীয় ক্রিকেটারদের।

Advertisement

কোনটি স্পিন আর কোনটি গুগলি সেটি বুঝতে আমার যথেষ্ট বেগ পেতে হয়েছে। অবশ্য এ ব্যাপারে শচীন টেন্ডুলকার আমাকে যথেষ্ট সাহায্য করেছেন। তিনি আমাকে মুত্তিয়া মুরালিধরনের বল পড়তে শিখিয়েছেন। যখন শ্রীলংকার বিরুদ্ধে খেলতে যেতাম মনে মনে সর্বদা আলাদা একটি চাপ যেন আমাকে ঘিরে ধরত। আজও যদি মুত্তিয়া মুরালিধরনকে খেলতে হয় তবে রাতে আমার ঘুম হবে না। আমার ক্রিকেট জীবনের সবচেয়ে বিধ্বংসী বোলার হলেন মুরালিধরন।

উল্লেখ্য, মুত্তিয়া মুরালিধরন শ্রীলংকান দলের হয়ে বিধ্বংসী বোলিং করেছেন বিশ্ব ক্রিকেটে। তিনি তার ক্যারিয়ারে ১৩৩টি টেস্ট ম্যাচ খেলে ৮০০ উইকেট সংগ্রহ করেছেন। হোম সিরিজে তার বোলিং ফিগার হয়ে উঠত আরও মারাত্মক। মাত্র ৫৯টি ম্যাচ খেলে ৪১২টি উইকেট সংগ্রহ করেছেন মুত্তিয়া মুরালিধরন। তার বোলিং অ্যাকশনও ছিল অত্যন্ত ভয়ঙ্কর। যে কোন ব্যাটসম্যান কে ভীত করার জন্য সেটি ছিল যথাযথ উপযুক্ত। বীরেন্দ্র শেওয়াগ ইউটিউব চ্যানেলে বলেন, মুরালিধরনের বল বুঝতে আমার ২০০১ সাল থেকে ২০০৭ সাল পর্যন্ত সময় লেগেছে। হার এখনো আমি স্বপ্নের মধ্যেও তার বল দেখলে ঘুমাতে পারিনা। মুরালিধরণকে পড়তে শচীন টেন্ডুলকার আমাকে সবচেয়ে বেশি সাহায্য করেছেন। যতদিন ক্রিকেটের সাথে আমার সম্পর্ক থাকবে ততদিন মুত্তিয়া মুরালিধরনের বল আমাকে ভয় দেখাবে।

Advertisement

#Trending

More in Cric Gossip