Cricket NewsIndian Cricket Team

ভারত বনাম ইংল্যান্ড দ্বিতীয় টেস্টে বিরাটের অধিনায়কত্বে তৈরি হল ১৫ টি রেকর্ড

ভার‍ত বনাম ইংল্যান্ড দ্বিতীয় টেস্টটি প্রত্যেক ভারতীয় ক্রিকেট ভক্তদের কাছে অত্যন্ত রোমহর্ষক। বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে যেতে হলে ভারতকে এই ম্যাচ জিততেই হতো। ফলে এই টেস্টের ফলাফল নিয়ে উত্তেজনা ছিল তুঙ্গে। তবে প্রথম থেকেই ম্যাচকে নিজেদের হাতে রেখেছিলো ভারতীয় দল। প্রথম ইনিংসেই ভারত ৩২৯ রান তোলে। বিপরীতে ইংল্যান্ড ১৩৪ রানে অল আউট হয়। ফলে রানের ব্যাবধান অনেকটাই তৈরি হয়। দ্বিতীয় ইনিংসে ইংল্যান্ডের সামনে ৪৮২ রানের পাহাড় প্রমাণ টার্গেট রাখা হয়। যার ধারের কাছে পৌঁছাতেও ব্যর্থ হত রুটের বাহিনী। ৩১৭ রানের ব্যবধানে জয় ছিনিয়ে আনে ভারত। আর এর কৃতিত্ব যায় দলের প্রত্যেক খেলোয়াড়ের কাছে। ২য় টেস্টে হিট্ম্যান রোহিত দুর্দান্ত ভঙ্গিতে কামব্যাক করেন। ঝড়ের গতিতে রান এগিয়ে নিয়ে যান তিনি। অন্যদিকে ২য় ইনিংসে স্পিনার আশ্বিন শতরান করেন। মোট ৮ টি উইকেটের মালিকও হন তিনি। এই ম্যাচ জিততে দলের মধ্যে কোনো খামতি ছিল না। আর এই দ্বিতীয় টেস্ট শেষ হওয়ার সাথে সাথে তৈরি হল একটি দুটি নয় ১৫ টি রেকর্ড। দেখে নিন ২য় টেস্টে তৈরি হওয়া ১৫ টি রেকর্ডঃ

১. এই টেস্ট জেতার পর ভারত ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ২৭ টি জয় সাক্ষর করল।

২. বিরাটের অধিনায়কত্বে এর আগে পরপর ৪ টি ম্যাচ হেরেছিল ভারত। তাঁরই নেতৃত্বে এই টেস্ট জিতে পরপর পরাজয়ের ধারা ভাঙল বিরাট ও তাঁর বাহিনী।

৩.ক্রিকেটের সকল ফরম্যাটে সবচেয়ে সফল ভারতীয় ক্যাপ্টেনদের একজন হলেন কোহলি। ধোনি ৭৪ টি, আজহারউদ্দিন ৫৩ টি, সর্বোপরি বিরাট ৫৩ টি ম্যাচ জয় করলেন।

৪.দেশের মাটিতে সর্বাধিক টেস্ট জয় করে ধোনির পাশে নাম লেখালেন বিরাট। উভয়ই ২১ টি করে টেস্টে জয় এনেছে। এক্ষেত্রে ধোনিকে টপকে যেতে পারেন বিরাট।

৫. অধিনায়ক হিসেবে ঘরের মাটিতে জয়লাভ করা ক্ষেত্রে গোটা বিশ্বে ৫ নং এ আছেন কোহলি। তাঁর আগে আছেন গ্রীম স্মিথ(৩০), রিকি পন্টিং(২৯), স্টিভ ওয়া(২২), ধোনি(২১), বিরাট কোহলি(২১)।

৬. ভারত এমএ চিদাম্বরম স্টেডিয়ামে অধিকাংশ জয় করেন। মোট ১৫ টি জয় হয় এই স্টেডিয়ামে। এরপর আছে অরুণ জেটলি স্টেডিয়াম(১৩), ইডেন গার্ডেন্স স্টেডিয়াম(১৩)।

৭.অক্ষর প্যাটেল দ্বিতীয় ইনিংসে দলের হয়ে ৫ টি উইকেট নেন। এটা তাঁর টেস্ট ক্রিকেট কেরিয়ারের প্রথম ৫ উইকেট নেওয়ার রেকর্ড একই ইনিংসে।

৮.অক্ষর প্যাটেল ভারতের হয়ে নিজের ডেবিউ ম্যাচে একই ইনিংসে ৫ উইকেট নেওয়া নবম বোলার হিসেবে নাম লেখালেন।

.৯. একই ব্যাটসম্যানকে একটানা ১০ বার আউট করে রেকর্ড করেন আশ্বিন। এই দলে আছেন বেন স্টোকস(১০বার), ডেভিড ওয়ার্নার(১০বার)। এছাড়াও আছেন অ্যালিস্টেয়ার কুক(৯বার), জেমস অ্যাণ্ডারসন(৭বার)।

১০.অধিনায়ক বিরাট কোহলির নেতৃত্বে বেন ফোকসের উইকেটটি টেস্টের ১০০০তম উইকেট ছিল।

১১.রোহিত শর্মা এই ম্যাচের প্রথম ইনিংসে ১৬২ রান করেছিলেন, এবং এটি তাঁর টেস্ট কেরিয়ারের সপ্তম শতরান ছিল।

১২. অশ্বিন ভারত বনাম ইংল্যান্ড ২য় টেস্টে ম্যাচের দ্বিতীয় ইনিংসে সেঞ্চুরি করেছেন। এটি তাঁর টেস্ট কেরিয়ারে ৫ নং সেঞ্চুরি ছিল।

১৩.রবিচন্দ্রন অশ্বিন এই টেস্টের ১ম ইনিংসে ৫ টি উইকেট নিয়েছিলেন। এবং এটি তাঁর টেস্ট কেরিয়ারের ২৯তম পাঁচ উইকেট।

১৪.অক্ষর প্যাটেল ২য় টেস্টে ডেবিউ করেন। তিনি হলেন ভারতের হয়ে টেস্ট ডেবিউ করা ৩০২তম প্লেয়ার।

১৫.সর্বাধিক টেস্ট জয়ের অংশ হওয়া ভারতীয় খেলোয়াড়দের মধ্যে নাম লেখালেন বিরাট(৪৫), ইশান্ত(৪৫) ও পূজারা(৪৮)। তাদের আগে আছেন শচীন তেন্ডুলকর(৭২), রাহুল দ্রাবিড়(৫৬), ভিভিএস লক্ষ্মণ(৪৭)

আরও পড়ুন

Back to top button