Cricket NewsIndian Cricket Team

Indian Cricket Team: ঘুরে দাঁড়ানোর লক্ষ্যে টিম ইন্ডিয়া, প্রথম ধাপ ঠিক করে ফেলেছে বিদায়ী টিম ম্যানেজমেন্ট

এই বিশ্বকাপের পর মেয়াদ শেষ হচ্ছে রবি শাস্ত্রীর। শুরু হচ্ছে রাহুল দ্রাবিড়ের রাজত্ব। রবি শাস্ত্রীর পাশাপাশি কোচিং স্টাফদেরও মেয়াদ শেষ হচ্ছে। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারতীয় দলের ভরাডুবি হওয়ার পর কিভাবে তিনি দলকে সামলাবেন সেটাই এখন দেখার।

Advertisement

এবছর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মঞ্চ থেকে ইতিমধ্যেই বিদায় নিয়েছে ভারত। এখন থেকেই ভারতীয় দলের ভবিষ্যৎ নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। ইতিমধ্যেই একটি সংস্কারের কথা ভেবে ফেলেছে টিম ইন্ডিয়ার ম্যানেজমেন্ট। ভারতীয় দলের বোলিং কোচ ভরত অরুণ এই প্রসঙ্গে নিজের বক্তব্য পেশ করেছেন। এই বিশ্বকাপের পর মেয়াদ শেষ হচ্ছে রবি শাস্ত্রীর। শুরু হচ্ছে রাহুল দ্রাবিড়ের রাজত্ব। রবি শাস্ত্রীর পাশাপাশি কোচিং স্টাফদেরও মেয়াদ শেষ হচ্ছে। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারতীয় দলের ভরাডুবি হওয়ার পর কিভাবে তিনি দলকে সামলাবেন সেটাই এখন দেখার।

Advertisement

বোলিং কোচ ভরত অরুণের কথায়, বিভিন্ন ঘরানার ক্রিকেটের জন্য বিভিন্ন বোলারকে তৈরি করার প্রয়োজন রয়েছে। তার মতে এক ঝাঁক বোলার যদি সব সময় তৈরি থাকে তাহলে তা দলের পক্ষে খুবই সুবিধাজনক হয়ে উঠবে। একদিকে যেমন সমস্ত বোলারদের বিশ্রাম দিয়ে দিয়ে খেলানো যাবে, অন্যদিকে সমস্ত বোলারদের সম্পর্কে জানাও যাবে। ভারতীয় দলের ফার্স্ট বোলারদের এই পদ্ধতিতে খেলানো হলে বোলাররা শারীরিকভাবে ও মানসিকভাবে চাঙ্গা থাকবে বলেই মনে করেন ভরত অরুণ।

Advertisement

ভারতীয় দলের বর্তমান বোলিং কোচ ভরত অরুণ ভারতীয়দের ব্যর্থতার কারণ জানালেন। তার মতে আইপিএলের দ্বিতীয় ইনিংস এবং টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ একেবারে গায়ে গায়ে অনুষ্ঠিত হওয়ায় বিশ্রাম পাননি ক্রিকেটাররা। টানা ছয় মাস ভারতীয় ক্রিকেটাররা বায়ো বাবেলের মধ্যেই ছিলেন। ঘরে ফেরার সুযোগ মেলেনি তাদের। যেটা তাদের জন্য খুবই কঠিন ব্যাপার ছিল। বিশ্রাম না পাওয়াকেই অন্যতম ব্যর্থতার কারণ হিসেবে নির্দেশ করেছেন তিনি। তিনি এও বলেন, ক্রিকেটাররা আইপিএলের পর বিশ্রাম পেলে হয়তো টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মঞ্চে ভারতীয়দের ফর্ম অন্যরকম হত। আর ফলাফলও। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মঞ্চে ভারতীয় দলের ব্যর্থতার জন্য জসপ্রীত বুমরাহও পরোক্ষভাবে দায়ী করেছেন আইপিএলকেই।

অন্যদিকে ভরত অরুণ মনে করেন টস একটা বড় ভূমিকা পালন করেছে এবার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে। কারণ টসে জেতা না জেতা প্রভাব ফেলতো দ্বিতীয় ইনিংসের ব্যাটিংয়ের ক্ষেত্রে। যার ফলে সুবিধা হতো বিপক্ষ দলের। ভরত অরুণ এও জানান, সাত বছর আগে যখন তারা ভারতীয় দলের দায়িত্ব নিয়েছিলেন তখনকার থেকে বর্তমানে ভারতীয় দলের অবস্থা অনেক ভালো। অর্থাৎ আগের থেকে অনেক উন্নতি করেছে টিম ইন্ডিয়া। ভারতের বোলিং স্কিল বর্তমানে সবথেকে ভালো। এই ধরনের বোলিং আক্রমণ তৈরি করার জন্য তাদের অনেক পরিশ্রম করতে হয়েছে বলেই জানিয়েছেন তিনি।

তবে মোদ্দা কথা হল রবিবারের পর পুরোপুরিভাবে এবছর বিশ্বকাপের পর্ব শেষ হল ভারতের জন্য। চলতি মাসের ১৭ই নভেম্বর থেকে শুরু হতে চলেছে নিউজিল্যান্ড বনাম ভারতের ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি সিরিজ। বিশ্বকাপের পরে ভারতীয় ক্রিকেট সমর্থকদের নজর এখন সেইদিকেই।

Related Articles

Back to top button