Cricket NewsIndian Cricket Team

Ravi Shastri: বিশ্রাম পায়নি দল, ভারতীয় দলের ব্যর্থতার জন্য সৌরভের বোর্ডের ঘারেই দোষ চাপালেন শাস্ত্রী

সোমবারই শেষ দিন ছিল ভারতীয় দলে। বিদায় বেলায় বিশ্বকাপের মঞ্চে দলের ব্যর্থতা নিয়ে মুখ খুললেন ভারতীয় দলের প্রাক্তন হেড কোচ রবি শাস্ত্রী। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারতীয় দলের ব্যর্থতার জন্য সমস্ত দোষ চাপালেন ক্রিকেট বোর্ডের উপরেই।

Advertisement

ভারতীয় দলে রবি শাস্ত্রীর মেয়াদ শেষ হয়েছে। সোমবারই শেষ দিন ছিল ভারতীয় দলে। বিদায় বেলায় বিশ্বকাপের মঞ্চে দলের ব্যর্থতা নিয়ে মুখ খুললেন ভারতীয় দলের প্রাক্তন হেড কোচ রবি শাস্ত্রী। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারতীয় দলের ব্যর্থতার জন্য সমস্ত দোষ চাপালেন ক্রিকেট বোর্ডের উপরেই।

Advertisement

বিদায় বেলায় দলের ব্যর্থতা নিয়ে শাস্ত্রী নিজের বক্তব্য জানালেন। তার কথায়, টানা ছয় মাস ধরে জৈব বলয়ে থাকতে হয়েছে ভারতীয় ক্রিকেটারদের। খেলার আগে মানসিক প্রস্তুতির প্রয়োজন পড়ে। কিন্তু এবার বিশ্বকাপের আগে সেই প্রস্তুতি সেভাবে জোরদার হয়নি বলেই দাবি প্রাক্তন হেড কোচের। তার কথায়, আইপিএলের দ্বিতীয় ইনিংস ও টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মধ্যে বিরতি না থাকায় ভারতীয় দলের ক্রিকেটাররা শারীরিকভাবে এবং মানসিকভাবে ক্লান্ত ছিল। তাদের মধ্যে কিছুর একটা অভাব চলছিল। জেতার চেষ্টা দেখা যায়নি ভারতীয় দলের মধ্যে। তার কথাতেও দলের ব্যর্থতার কারণ হিসেবে পরোক্ষভাবে উঠে এসেছে আইপিএলের প্রসঙ্গ।

Advertisement

তার কথায়, শেষ দু বছরে ২৫ দিন বাড়ি যাওয়ার সুযোগ পেয়েছেন ভারতীয় ক্রিকেটাররা। শাস্ত্রীর মতে, ৬ মাস জৈব বলয়ে টানা থাকতে হলে ব্র্যাডম্যানেরও গড় কমে যেত। শাস্ত্রী রীতিমতো ক্ষোভ উগরে দিয়ে বলেছেন ক্রিকেটাররাও মানুষ, যন্ত্র নয়। শুধুমাত্র পেট্রোল ঢেলে দিলেই তারা চলতে শুরু করবে না তাদের বিশ্রামের প্রয়োজন।

তার কথায়, ক্রিকেটারদের বিশ্রাম দেওয়ার কথা বোর্ডকে বলার দায়িত্ব তার নয়। বড় কোন প্রতিযোগিতায় মাঠে নামার আগে ক্রিকেটারদের বিশ্রাম দেওয়া উচিৎ বোর্ডের। বিশ্রাম পেলে সমস্ত ক্রিকেটাররা মানসিকভাবে ও শারীরিকভাবে চাঙ্গা থাকেন খেলার জন্য। এক্ষেত্রে সেই দায়িত্ব বোর্ডের। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নামার আগে বিশ্রাম না পাওয়ার জন্য সৌরভ গাঙ্গুলীর বোর্ডকেই দোষারোপ করলেন শাস্ত্রী। বিশ্বকাপের আগে বিশ্রাম পেলে এবছর টি-টোয়েন্টির ছবিটা ভারতীয় ক্রিকেটারদের জন্য অন্যরকম হতে পারতো বলেই মনে করেন তিনি।

Related Articles

Back to top button