Cricket NewsIndian Cricket Team

ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে প্রথম ওয়ানডেতে এই ১১ জন প্লেয়ার নিয়ে মাঠে নামবে ভারত, দেখুন প্রথম একাদশ

২৩ মার্চ অর্থাৎ আগামীকাল থেকে পুনেতে শুরু হতে চলেছে ভারত বনাম ইংল্যান্ড ওয়ানডে সিরিজ। ভারত ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে প্রথমে টেস্ট ও পরে পাঁচ ম্যাচের টি২০ সিরিজে জয় পায় যা শনিবার (২০ মার্চ) শেষ হয়। টেস্টের মত, ইংল্যান্ড একটি জয় সঙ্গে টি২০ সিরিজ শুরু করে কিন্তু এটিও জিততে ব্যর্থ হয়। প্রথম তিনটি ম্যাচের দুটিতে পরাজয়ের পর ভারত আহমেদাবাদে সিরিজ ৩-২ তে জিতেছে। উভয় দলই এখন ওয়ানডেতে এর বিরুদ্ধে লড়াই করবে। এই সিরিজ দিয়েই ভারতে ইংল্যান্ডের সফর শেষ হবে যা ফেব্রুয়ারিতে চার ম্যাচের টেস্ট সিরিজ দিয়ে শুরু হয়েছিলো। ২৬ তারিখে দ্বিতীয় ওয়ানডে এবং ২৮শে মার্চ তৃতীয় ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। একনজরে দেখে নিন প্রথম ওয়ানডেতে ভারতের সম্ভাব্য একাদশঃ

১। শিখর ধাওয়ান

ভারত ওপেনিংটা একটি বাম-ডান কম্বিনেশন দিয়ে সিরিজ শুরু করতে চাইবে এবং সেদিক থেকে ধাওয়ান-রোহিত জুটি বছরের পর বছর ধরে অসাধারণ পারফরমেন্স দিয়েছে। ধাওয়ান প্রথম টি-টোয়েন্টিতে রান না তুলতে পারায় বাদ পড়েন। এবার তাঁকে দলে জায়গা ধরে রাখার জন্য রান আপ করার ব্যাপারে সচেতন হতে হবে।

২। রোহিত শর্মা

রোহিত শর্মা দলের সহ-অধিনায়ক এবং টিম শীটের প্রথম দিকেই তাঁর নাম রয়েছে। তিনি একজন বিশ্বমানের ব্যাটসম্যান। মাত্র ৩৪ ডেলিভারিতে ৬৪ রান করে চূড়ান্ত টি২০ খেলায় দলকে জেতাতে অনবদ্য অবদান রাখেন। অধিনায়কের অনুপস্থিতিতে মাঠে সহ-অধিনায়ক হিসেবে তাঁর পারদর্শিতা সকলের নজর কেড়েছে। ওয়ানডেতেও তাঁকে এই ফর্মে দেখতে চায় ভক্তরা।

৩। বিরাট কোহলি

বিরাট নেতৃত্বে ভারত ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে প্রথমে টেস্ট এবং করে টি২০ সিরিজ জেতে। টি-টোয়েন্টির ফাইনালে অপ্রতিরোধ্য হয়ে উঠেছিলেন বিরাট। এবার ওয়ানডেতে সেই ফর্ম বজায় রেখে ভারতকে আরও একবার জয় এনে দিতে পারেন কিনা তা নিয়ে উত্তেজিত ক্রিকেট মহল।

৪। শ্রেয়াস আইয়ার/সূর্যকুমার যাদব

শ্রেয়াস আইয়ার ওয়ানডে ফরম্যাটের জন্য চার নম্বর নির্বাচিত হয়েছেন। তবে তাঁর সাথে সূর্যকুমার যাদবের টাইট প্রতিযোগিতা চলবে। যখন দলের তাকে সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন ছিল তখন শ্রেয়াস যথেষ্ট পরিপক্কতা দেখিয়েছেন। অন্যদিকে সূর্যকুমারও দলকে বড় রান দিয়েছে। ফলে দলে জায়গা বজায় রাখতে শ্রেয়াসকে সূর্যকুমারের সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে ধারাবাহিকভাবে পারফর্ম করতে হবে।

৫। ঋষভ পন্থ

অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ওয়ানডে সিরিজ মিস করার পর ঋষভ পন্থ ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ওয়ানডে উপস্থাপনায় ফিরে আসবেন এবং এটাতে তিনি আবারও তাঁর পরিচয় প্রমাণ করার সুযোগ পাবেন। তিনি টি-টোয়েন্টি সিরিজে দুটি ড্যাশিং নক খেলে নজর খেলেছেন। তিনি আপদকালীন পরিস্থিতিতে প্রতিপক্ষের কাছ থেকে খেলা ছিনিয়ে নিতে পারেন। পন্থ উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান হিসেবে দলে কেএল রাহুলের জায়গায় স্থলাভিষিক্ত হবেন।

৬। হার্দিক পান্ডিয়া

হার্দিক পান্ডিয়া ছয় নম্বরে ব্যাট করার জন্য যথেষ্ট ভাল ব্যাটসম্যান এবং তিনি অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ওয়ানডে সিরিজে তা প্রমান করেছেন। তিনি এখন বেশ ভাল ফর্মে আছেন। তার বোলিং বিশেষজ্ঞদের দ্বারা প্রশংসিত হয়েছে। ওয়ানডে ফরম্যাটে ছয় থেকে আট ওভার বোলিং করতে হবে তাঁকে।

৭। ক্রুনাল পান্ডিয়া

ক্রুনাল পান্ডিয়া সম্প্রতি বিজয় হাজারে ট্রফিতে কিছু ধারাবাহিক পারফরম্যান্সের পর আন্তর্জাতিক দলে ফিরছেন এবং তিনি দলে রবীন্দ্র জাদেজার ভূমিকা পালন করবেন এমনটাই আশা করা হচ্ছে। এটা তার জন্য একটি বড় সুযোগ হবে দলে তাঁর জায়গা পরিপক্ক করার। তিনি কমবেশি ১০ ওভার বোলিং করতে পারেন এবং ব্যাটিং লাইনআপের যে কোন জায়গায় ব্যাট করতে পারেন।

৮। শার্দুল ঠাকুর

টি-টোয়েন্টি সিরিজে শার্দুল ঠাকুরের সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স বহুল প্রশংসা পেয়েছে। প্রয়োজনীয় সময়ে বিরোধী দলের উইকেটের পতন ঘটিয়ে টিমে আবার সমতা ফেরান। এছাড়া তিনি লোয়ার অর্ডারে ব্যাট করতে পারেন যা টিমের জন্য বাড়তি পাওনা। তিনি আগামী বছরগুলোতে ভারতীয় টিমে একটি বড় ভূমিকা পালন করবেন।

৯। ভুবনেশ্বর কুমার

ভুবনেশ্বর কুমার ভারতের ওয়ানডে দলের বোলিং বিভাগের তুরুপের তাস। টি-টোয়েন্টি সিরিজে তার প্রত্যাবর্তন অসাধারণ ছিল। তিনি চূড়ান্ত
টি২০ খেলায় চমৎকার বোলিং করেন এবং একটি উচ্চ স্কোরিং ম্যাচে ৪ ওভারে ১৫ রানে ২টি উইকেট নেন যার জন্য তাঁকে ম্যান অফ দ্য ম্যাচ করা হয়। তিনি বুমরাহ এবং শামির জায়গায় ভারতীয় দলে পেস আক্রমণের নেতৃত্ব দেবেন।

১০। কুলদীপ যাদব

কুলদীপ যাদব অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে তার শেষ ওয়ানডে খেলায় ভাল পারফরমেন্স দিয়েছিলেন। এই সিরিজে তাঁকে চাহালের চেয়ে অগ্রাধিকার দেওয়া হতে পারে। কুলদীপ টপ উইকেট গ্রহণকারী বোলারদের মধ্যে একজন। তবে কুলদীপকে জায়গা ধরে রাখতে নিজেকে প্রমান করতে হবে কারণ গত কয়েক মাসে দলের সাথে ভ্রমণ সত্ত্বেও তেমন কোন খেলার তাঁকে দেখা যায়নি।

১১। টি নটরাজন

উপলব্ধ তিনটি ফাস্ট বোলিং অপশনের মধ্যে, নটরাজন কে সেরা বিকল্প মনে হচ্ছে যেহেতু তিনি সীমিত সুযোগের মধ্যেও ভাল পারফরমেন্স করেছেন। তিনি ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে চূড়ান্ত টি২০ খেলেন এবং ভারতের পক্ষে খেলা ফিরিয়ে আনতে ডেথ ওভারে সত্যিই ভাল বোলিং করেন। তিনি ইয়র্কার বোলিং করতেও বেশ পারদর্শী। তাই বুমরাহর অনুপস্থিতিতে ভারতের জন্য তিনি একজন সেরা বিকল্প হবে। এর সাথে মোহাম্মদ সিরাজ এবং প্রসিধ কৃষ্ণ দলে শীঘ্রই সুযোগ পাবেন আশা করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন

Back to top button