Cricket NewsInternational Cricket

SL vs WI: বলের আঘাতে মাঠে লুটিয়ে পড়লেন ক্যারিবিয়ান ক্রিকেটার, ফিরল ফিল হিউজের স্মৃতি

শ্রীলঙ্কা-ওয়েস্ট ইন্ডিজ টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচ ২২ গজে ফিল হিউজের স্মৃতিকে উস্কে দিল। এদিন ম্যাচ চলাকালীন ফিল্ডিংয়ের সময় ওয়েস্ট ইন্ডিজের জেরেমি সোলোজানো বলের আঘাতে লুটিয়ে পড়েন মাটিতে। তবে এদিন মৃত্যুর মতো দুর্ভাগ্যজনক কোনো ঘটনা ঘটেনি।

Advertisement

শ্রীলঙ্কা-ওয়েস্ট ইন্ডিজ টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচ ২২ গজে ফিল হিউজের স্মৃতিকে উস্কে দিল। এদিন ম্যাচ চলাকালীন ফিল্ডিংয়ের সময় ওয়েস্ট ইন্ডিজের জেরেমি সোলোজানো বলের আঘাতে লুটিয়ে পড়েন মাটিতে। তবে এদিন মৃত্যুর মতো দুর্ভাগ্যজনক কোনো ঘটনা ঘটেনি। বর্তমানে এই তরুণ ক্রিকেটার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

Advertisement

অভিষেক ম্যাচেই এমন দুর্ঘটনার সম্মুখীন হয়েছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের এই ২৬ বছর বয়সী তরুণ ক্রিকেটার। টসে জিতে শ্রীলঙ্কা ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছিল এদিন। শ্রীলঙ্কার প্রথম ইনিংসের ২৪তম ওভারে এমন ঘটনা ঘটে। রোস্টন চেজের একটি শর্ট ডেলিভারিতে সজোরে ব্যাট চালিয়েছিলেন শ্রীলঙ্কার অধিনায়ক দিমুথ করুনারত্নে। সেই সময়ে শর্ট লেগে ফিল্ডিং করছিলেন জেরেমি। করুনারত্নের মারা বল সজোরে এসে জেরেমির মাথায় আঘাত করে তৎক্ষণাৎ সে ২২ গজেই লুটিয়ে পড়েন।

Advertisement

এই ঘটনা ঘটার পরেই দলের ফিজিও তার প্রাথমিক চিকিৎসা করেন। তৎক্ষণাৎ তাকে স্ট্রেচারে করে মাঠের বাইরে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে অবস্থা গুরুতর হওয়ায় হাসপাতালে ভর্তি করতে হয় জেরেমিকে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্রিকেট বোর্ডের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, ব্রেনস্ক্যানের জন্য তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। তারা এও জানিয়েছেন, জ্ঞান রয়েছে জেরেমির।

শনিবার বাংলাদেশ বনাম পাকিস্তানের টি-টোয়েন্টি সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে ইনিংসের তৃতীয় ওভারে শাহিন আফ্রিদির দ্বিতীয় বলে ছক্কা হাঁকান আফিফ হোসেন। পরবর্তী বলটিতে শুধুমাত্র ডিফেন্স করেছিলেন আফিফ। সেই বল সোজা শাহিন আফ্রিদির হাতে চলে যায়। এরপরেই আফ্রিদি সেই বল সজোরে ছুঁড়ে দিয়েছিলেন আফিফের দিকে। তার মাথায় বলটি সজোরে লাগার পরই মাঠের মধ্যে বেশ কিছুক্ষণ শুয়ে কষ্ট পেতে দেখা গিয়েছে আফিফকে। এই ঘটনা ঘটার পর থেকেই তাকে নিয়ে সমালোচনার ঝড় উঠেছে সোশ্যাল মিডিয়াতে। এই ঘটনার ভিডিও এখন গোটা নেটদুনিয়ায় ভাইরাল।

তবে শাহিন আফ্রিদির ঘটানো ঘটনাটির সাথে শ্রীলঙ্কা-ওয়েস্ট ইন্ডিজের টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচে ঘটে যাওয়া ঘটনার কোনো মিল নেই। কারণ শ্রীলঙ্কার অধিনায়ক ইচ্ছা করে ঘটনাটি ঘটাননি। দুর্ভাগ্যবশত এমন ঘটনা ঘটে গেছে এদিন। মাঠে থাকা সমস্ত ক্রিকেটাররাই ভয় পেয়ে গিয়েছিলেন সেইসময়ে। বর্তমানে গোটা ক্রিকেটবিশ্ব একত্রিত হয়ে একটাই কামনা করছেন, যাতে এই ২৬ বছর বয়সী তরুণ ক্যারিবিয়ান ক্রিকেটার শীঘ্রই সুস্থ হয়ে মাঠে ফিরতে পারেন।

Related Articles

Back to top button