Cric GossipCricket News

Pandora Papers: আর্থিক লেনদেন কেলেঙ্কারিতে নাম জড়ালেন সচিন তেন্ডুলকর

রিপোর্টে উঠে এসেছে একাধিক রাজনীতিবিদ, ব্যবসায়ী, ক্রীড়াবিদ ও চলচ্চিত্র ব্যক্তিত্বের নাম। এবার এই আর্থিক কেলেঙ্কারিতে নাম জড়ালো 'ক্রিকেট ঈশ্বর' শচীন টেন্ডুলকারের।

দেশ-বিদেশের সাংবাদিকদের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় চাঞ্চল্যকর তদন্তমূলক রিপোর্ট ‘প্যান্ডোরা পেপার্স’ সামনে এলো সকলের। যা নিয়ে শোরগোল পড়েছে চারিদিকে। এই রিপোর্টে উঠে এসেছে একাধিক রাজনীতিবিদ, ব্যবসায়ী, ক্রীড়াবিদ ও চলচ্চিত্র ব্যক্তিত্বের নাম। এবার এই আর্থিক কেলেঙ্কারিতে নাম জড়ালো ‘ক্রিকেট ঈশ্বর’ শচীন টেন্ডুলকারের।

এই তথ্য সকলের সামনে উঠে আসার পর শচীন টেন্ডুলকারের আইনজীবী অবশ্য জানিয়েছেন, শচীনের যাবতীয় বৈদেশিক লেনদেন সম্পূর্ণভাবে বৈধ। তিনি আরো দাবি করেন, কর কর্তৃপক্ষের কাছে শচীন টেন্ডুলকারের সমস্ত বৈদেশিক বিনিয়োগের হিসাব রয়েছে। এই রিপোর্টে সবার আগে শচীনের নাম উঠে এলও, এখনও পর্যন্ত রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বের নাম সামনে আসেনি।

‘প্যান্ডোরা পেপার্স’-এ বিশ্বের তাবড় তাবড় রাঘব বোয়ালদের গোপন সম্পত্তি ও আর্থিক লেনদেন ফাঁস করা হয়েছে। এই রিপোর্টে প্রভাবশালী ব্যক্তিরা নিজেদের গোপন সম্পদ কিভাবে বিদেশি ব্যাঙ্কের মাধ্যমে সরিয়েছেন সেটাই তুলে ধরা হয়েছে।

‘ইন্টারন্যাশনাল কনসোর্টিয়াম অফ ইনভেস্টিগেটিভ জার্নালিস্টস’ (ICIJ)-এর তরফ থেকে জানানো হচ্ছে যে তারা বর্তমানে ৩৫ জন রাজনৈতিক নেতা ছাড়াও প্রাক্তন বিশ্বনেতাদের গোপন সম্পদ নিয়ে তদন্ত চালিয়ে এই রিপোর্ট তৈরি করেছেন। এতে নাম রয়েছে ধনকুবের, ব্যবসায়ী, চলচ্চিত্র ব্যক্তিত্ব ও ক্রীড়াবিদদের। ‘বিবিসি’ ও ‘দ্য গার্ডিয়ান’-এর মতো নামী সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে ভারতের ‘দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস’ ‘আইসিআইজে’-এর সঙ্গে হাত মিলিয়ে রিপোর্ট বানিয়েছেন, যা রীতিমতো চাঞ্চল্য সৃষ্টি করেছে গোটা বিশ্বে।

সব মিলিয়ে মোট ৬০০ জন সাংবাদিকের মিলিত প্রয়াসে ১১.৯ মিলিয়ন গোপন নথিপত্র ফাঁস করা সম্ভব হয়েছে। যাতে উঠে এসেছে বড় বড় প্রভাবশালী ব্যক্তিত্বদের গোপন সম্পদের খোঁজ। তবে সম্প্রতি এই বিশাল আর্থিক কেলেঙ্কারিতে নাম জড়িয়েছে শচীন টেন্ডুলকারের যা নিয়ে রীতিমতো শোরগোল ছড়িয়েছে গোটা বিশ্বে।

Related Articles

Back to top button