Connect with us

Cricket News

ভারতের বিপক্ষে খেলতে নারাজ শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটাররা, তপ্ত শ্রীলঙ্কার ক্রিকেট

  • by

Advertisement
Advertisement

বোর্ডের চুক্তিতে সই করতে নারাজ শ্রীলঙ্কার সিনিয়র ক্রিকেটাররা। টেস্ট অধিনায়ক দিমুথ করুণারত্নের নেতৃত্বে শ্রীলঙ্কার শীর্ষস্থানীয় ক্রিকেটাররা এবং অন্যান্য অনেক সিনিয়র খেলোয়াড় দীনেশ চান্দিমাল এবং অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজরাও স্পষ্টতই নতুন কেন্দ্রীয় চুক্তিতে স্বাক্ষর না করার সাহসী সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। বর্তমানে তাদের বেতন ৪০ শতাংশ পর্যন্ত হ্রাস করা হয়েছে। দলটি জুলাই মাসে ভারতের বিপক্ষে ছয়টি সাদা বলের ম্যাচ খেলার কথা রয়েছে। শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটের (এসএলসি) দৃষ্টিকোণ থেকে সিরিজটি গুরুত্বপূর্ণ কারণ বোর্ড টি আর্থিকভাবে লড়াই করছে এবং ভারত সফরে সম্মত হয়ে তাদের সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিচ্ছে। কিন্তু মোটা বেতন হ্রাসের কারণে ভারতের বিপক্ষে খেলতে নারাজ শীর্ষস্থানীয় ক্রিকেটাররা।

শ্রীলঙ্কার শীর্ষ স্থানীয় খেলোয়াড় এবং অন্যান্য বেশ কয়েকজন খেলোয়াড়ের প্রতিনিধিত্বকারী অ্যাটর্নির এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ফেডারেশন অফ ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের (এফআইসিএ) প্রতিবেদন অনুযায়ী অন্যান্য ক্রিকেট দেশগুলোর তুলনায় বেতন-হ্রাস অনেক বেশি। শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট, এই সপ্তাহে, তার ২৪ জন খেলোয়াড়কে কেন্দ্রীয় চুক্তির প্রস্তাব দিয়েছে এবং খেলোয়াড়দের নথিতে স্বাক্ষর করার জন্য ৩ জুন পর্যন্ত সময়সীমা দিয়েছে।

শ্রীলঙ্কার খেলোয়াড়রা চড়া বেতন হ্রাসের কারণে অসন্তুষ্ট। এসএলসির ক্রিকেট উপদেষ্টা কমিটির (সিএসি) চেয়ারম্যান আরাভিন্দা ডি সিলভা সাংবাদিকদের বলেন, গত কয়েক বছরে দলের নিষ্প্রভ পারফরম্যান্সের ভিত্তিতে তাদের এমন কঠোর পদক্ষেপ নিতে হয়েছে। ডি সিলভা বলেন, “আমরা খেলোয়াড়দের জন্য একটি মূল পারফরম্যান্স সূচক রাখতে চেয়েছিলাম যাতে আমরা তাদের মূল্যায়ন করতে পারি। নতুন বেতন প্রকল্পটি একটি প্রণোদনা-ভিত্তিক চুক্তি।”

খেলোয়াড়রা স্পষ্টতই খুশি নয় কারণ তারা মনে করে যে বোর্ডও তার খেলোয়াড়দের সঠিকভাবে পরিচালনা না করার জন্য সমানভাবে দায়ী। দলের অভিজ্ঞ খেলোয়াড়রা আরও যোগ করেছেন যে বোর্ডের মধ্যেকার কাঠামো এবং রাজনীতি আসলে গত দুই থেকে তিন বছরে দলের পতন এনেছে। শ্রীলঙ্কা তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে বাংলাদেশের সাথে খেলতে যাচ্ছে যা ২৩ মে, রবিবার থেকে শুরু হতে চলেছে।

Advertisement

#Trending

More in Cricket News