Cricket News

করোনার জন্য ইংল্যান্ড সফর নিয়ে চিন্তায় শ্রীলঙ্কা

আবারো করোনাভাইরাসের প্রকোপ বেড়ে গেছে ইংল্যান্ডে। তাই ইংল্যান্ডের সাথে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করেছে। আর এতেই জানুয়ারিতে ইংল্যান্ডের শ্রীলঙ্কা সফর হুমকির মুখে পড়েছে। সিরিজ নিয়ে অনিশ্চিয়তা তৈরি হলেও মাঠের লড়াইয়ে নামতে চায় শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ড। ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ডের সাথে আলোচনা করে সিরিজ আয়োজনের জন্য মুখিয়ে আছে এসএলসি। তবে শ্রীলঙ্কা সরকারের কড়া প্রটোকল ইসিবি না মানলে এই সিরিজটিও ভেস্তে যেতে পারে এরকম একটা সম্ভাবনাও তৈরি হয়েছে।

এসএলসির আশা, সকল নিয়ম মানবে ইসিবি এবং সফর হবে। চার্টার্ড ফ্লাইটে শ্রীলঙ্কা সফরে আসার কথা ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের। শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ডের মেডিকেল স্টাফ দামিন্ডা আত্মানায়েক বলেন, “আসন্ন সফর নিয়ে সকলেই চিন্তিত। কারণ করোনার প্রার্দুভাব আবারো বেড়ে গেছে। তবে যখন আপনি বৈজ্ঞানিক প্রমাণাদির দিকে তাকাবেন তখন মনে হবে, সফর বন্ধ করা উচিত নয়। আমাদের উচিত হবে, বাড়তি সতর্কতা নেওয়া, সরকারের বেঁধে দেয়া নিয়ম মেনে চলা। কারণ এখানেই সকলকেই সর্তক থাকতে হবে। তবে সফর বন্ধ করে দেয়া উচিত নয়।”

ইসিবি সরকারের প্রটোকল মানবে বলে বিশ্বাস আত্মানায়েকের। তিনি মনে করেন, “সরকারের প্রটোকল মেনেই সফর করতে হবে। সফরে আসার পর কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে ৩ দিন। এসময় কারও সংর্স্পশে যাওয়া যাবে না। এই কোয়ারেন্টিন থাকাকালীন জৈব-সুরক্ষা বলয়ে থাকবে ইংল্যান্ডের খেলোয়াড়রা।”

২ জানুয়ারি চার্টার্ড ফ্লাইটে শ্রীলঙ্কার উদ্দেশ্যে রওনা হওয়ার কথা ইংল্যান্ডের। এরপর তিনদিন কোয়ারেন্টিনে থাকবে ইংলিশরা। কোয়ারেন্টিন চলাকালীন করোনা পরীক্ষা করা হবে ইংল্যান্ডের খেলোয়াড়দের। রিপোর্ট নেগেটিভ আসলেই অনুশীলন শুরু করবে শ্রীলঙ্কা। প্রথম টেস্ট শুরু হবে ১৪ জানুয়ারি। ২২ জানুয়ারি থেকে দ্বিতীয় টেস্ট শুরু হবে। দেশের মাটিতে সিরিজের আগে দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে দু’ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলবে শ্রীলঙ্কা। যা শুরু হবে ২৬ ডিসেম্বর থেকে।

আরও পড়ুন

Back to top button