Cric GossipCricket News

Tim Paine: ‘ওই ঠোঁট দিয়ে আমার…’, ফাঁস হল টিম পেইনের সেক্স চ্যাট

টিম পেইন তার ঘরোয়া দল তাসমানিয়ায় কাজ করা এক সহকর্মীর সাথে সেক্স চ্যাট করার জন্যই বিতর্কে জড়িয়েছিলেন এই অজি ক্রিকেটার। বিতর্কে জড়িয়ে পড়ার পরই অস্ট্রেলিয়ার টেস্ট দলের অধিনায়ক পদ থেকে সরে দাঁড়ান তিনি।

Advertisement

২০১৭-এ অর্থাৎ চার বছর আগে টিম পেইন বিতর্কের কেন্দ্রবিন্দুতে উঠে আসেন। টিম পেইন তার ঘরোয়া দল তাসমানিয়ায় কাজ করা এক সহকর্মীর সাথে সেক্স চ্যাট করার জন্যই বিতর্কে জড়িয়েছিলেন এই অজি ক্রিকেটার। বিতর্কে জড়িয়ে পড়ার পরই অস্ট্রেলিয়ার টেস্ট দলের অধিনায়ক পদ থেকে সরে দাঁড়ান তিনি।

Advertisement

অস্ট্রেলিয়ার এই ক্রিকেটার চার বছর আগে তার বিয়ের এক বছর পরই এক মহিলার সাথে যৌন আবেদন মূলক ম্যাসেজ চালাচালি করতে গিয়েই বিতর্কে জড়িয়ে পড়েছিলেন। ২০১৭-১৮ সালে অ্যাসেজ দলে ডাক পাওয়ার সপ্তাখানেকের মধ্যেই এমন ঘটনায় জড়িয়ে পড়েন পেইন। এমনকি পেইন ম্যাসেজ চালাচালির সময় উত্তেজিত হয়ে নিজের পুরুষাঙ্গের ছবিও পাঠিয়েছিলেন ঐ মহিলাকে। ২০১৮’তে ঐ মহিলার অভিযোগে ক্রিকেট বোর্ড পেইনের বিরুদ্ধে তদন্ত কমিটিও বসিয়েছিলেন। তবে সেভাবে কোন দোষ প্রমাণিত না হওয়ার দরুন তাকে ক্ষমা করে দেওয়া হয়।

Advertisement

পরবর্তীকালে ঘটনাটি ধামাচাপা পড়ে যায়। তবে হঠাৎ করেই চার বছর পর তাদের সেই চ্যাট সকলের সামনে প্রকাশ পায়। মেসেজ দেখে স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছে প্রথমের দিকে দুই তরফেরই সায় ছিল বিষয়টায়। তবে পেইন সেই সময়ে উত্তেজিত হয়ে নিজের পুরুষাঙ্গের ছবি পাঠিয়ে দেওয়ায় ঐ মহিলা তার বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন। সেই বছর ২২ ও ২৩’শে নভেম্বর তাদের মধ্যে এই ম্যাসেজগুলি চালাচালি হয়েছিল।

বর্তমানে যে চ্যাট প্রকাশ পেয়েছে সেটি দেখলে ভালোভাবেই বোঝা যাবে প্রথমের দিকে ঐ মহিলা টিম পেইনকে নানা যৌন উস্কানিমূলক কথা বলেছিলেন। পেইনকে নিয়ে তার দুষ্টু চিন্তাভাবনার কথাও জানিয়েছিলেন তাকে। এরপরে এক ম্যাসেজে পেইন ঐ মহিলার উদ্দেশ্যে লেখেন, “ওই ঠোঁট দিয়ে আমার কাজটা শেষ করে দাও!” এরপর কথা বলতে বলতে পেইনের উত্তেজনা চরম পর্যায়ে চলে যাওয়ায় তিনি সেই সময় নিজের পুরুষাঙ্গের ছবি পাঠিয়ে দেন। যার ফলে বিতর্ক তৈরি হয়েছিল সেইসময়ে। পেইন পরে জানিয়েছিলেন, তিনি এই ঘটনার কথা তার স্ত্রীকে সবটাই জানিয়েছিলেন এবং তিনি তাকে ক্ষমা করে দিয়েছেন। তবে স্যান্ডপেপার গেট কান্ডে জড়ানোর পরেই অ্যাসেজ শুরু হওয়ার তিন সপ্তাহ আগেই দলের নেতৃত্ব ছাড়লেন এই অজি ক্রিকেটার। এই অবস্থায় অস্ট্রেলিয়াকে খুব শীঘ্রই অর্থাৎ তিন সপ্তাহের মধ্যেই তাদের পরবর্তী অধিনায়কে বেছে নিতে হবে।

Related Articles

Back to top button