Cricket NewsIPL League

Virender Sehwag: অশ্বিন-মরগান বিতর্কের সবচেয়ে বড় অপরাধী দীনেশ কার্তিক, বলেছেন বীরেন্দ্র শেওয়াগ

বীরেন্দ্র শেওয়াগ ওই প্রসঙ্গ নিয়ে আলোচনা করতে গিয়ে বলেন, আমি মনে করি ঐদিনের পুরো ঘটনার জন্য দীনেশ কার্তিক দায়ী। তিনি চাইলে ঘটনাটি ঘটার আগেই সেটি বন্ধ করতে পারতেন। কিন্তু তিনি সেটি করেননি। যার পরিপ্রেক্ষিতে মাঠের মধ্যে অসন্তোষ মূলক আচরণ লক্ষ্য করা যায়।

চলতি আইপিএলের আসরে দিল্লি ক্যাপিটালস এবং কলকাতা নাইট রাইডার্সের মধ্যে ম্যাচে একটি দুর্ঘটনা ঘটে। আজ পর্যন্ত এমন কোনো আইপিএলের এমন কোনো আসর কাটেনি যেখানে কোনো রকম বাধা বিপত্তি আসেনি। দিল্লি ক্যাপিটালস এবং কলকাতা নাইট রাইডার্সের মধ্যে অনুষ্ঠিত ম্যাচে ঠিক এমনই একটি লজ্জাজনক ঘটনা ঘটেছিল। সে প্রসঙ্গ নিয়ে আলোচনা করার সময় ভারতের প্রাক্তন ক্রিকেটার বীরেন্দ্র শেওয়াগ একটি মন্তব্য করেছেন। যা রীতিমতো ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। এদিন বীরেন্দ্র শেওয়াগ ওই প্রসঙ্গ নিয়ে আলোচনা করতে গিয়ে বলেন, আমি মনে করি ঐদিনের পুরো ঘটনার জন্য দীনেশ কার্তিক দায়ী। তিনি চাইলে ঘটনাটি ঘটার আগেই সেটি বন্ধ করতে পারতেন। কিন্তু তিনি সেটি করেননি। যার পরিপ্রেক্ষিতে মাঠের মধ্যে অসন্তোষ মূলক আচরণ লক্ষ্য করা যায়।

উল্লেখ্য, কলকাতা নাইট রাইডার্স এবং দিল্লি ক্যাপিটালসের মধ্যে ম্যাচে প্রথমে ব্যাটিং করছিল দিল্লি ক্যাপিটালস। যদিও খুব ভালো স্থানে দাঁড়িয়ে ছিল না দিল্লি ক্যাপিটালস। যথাসম্ভব রান সংগ্রহ করা ছিল তাদের মূল লক্ষ্য। প্রথম সারির ব্যাটসম্যানরা সব আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরেছিলেন। তখন ক্রিজে দাঁড়িয়ে ছিলেন দিল্লি ক্যাপিটালসের অধিনায়ক ঋষভ পন্ত এবং রবীচন্দ্রন অশ্বিন। ঠিক সেই সময় ইয়ন মরগানের সাথে বাকযুদ্ধে জড়ান রবীচন্দ্রন অশ্বিন। তার কারণ ছিল, ঋষভ পন্ত একটি বল বাউন্ডারি সীমানায় ঠেলে দিয়ে রান নেওয়ার জন্য দৌড়ান। প্রথম রান পূরণ করা হলেও রাহুল ত্রিপাঠীর করা থ্রো এসে লাগে ঋষভ পন্তের গায়ে। তারপর বল চলে যায় অন্য দিশায়। এই সুযোগে আরেকটি রান নিতে চাইছিলেন দুই ব্যাটসম্যান। আর এখানেই বাক্য বিনিময় করেন ইয়ন মরগান এবং রবীচন্দ্রন অশ্বিন।

যেটি পরবর্তীতে একটি ভয়ঙ্কর দিকে যেতে চলেছিল। যেখানে উইকেট-রক্ষক দীনেশ কার্তিক এসে রবীচন্দ্রন অশ্বিনকে বুঝিয়ে বাইরে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন তিনি। যদিও এই বিষয়টিতে দীনেশ কার্তিকের দোষ খুঁজেছেন বীরেন্দ্র শেওয়াগ। তিনি বলেন, যদি দীনেশ কার্তিক ইয়ন মরগানের কথায় সম্মতি না জানাতেন তাহলে মাঠের মধ্যে এমন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটত না। এক্ষেত্রে একজন ক্রিকেটারকে অন্তত ঠান্ডা ভাবে সিদ্ধান্ত নেওয়া উচিত।

যদিও বীরেন্দ্র শেওয়াগের এই যুক্তিকে পুরোপুরি অস্বীকার করেছেন দীনেশ কার্তিক। তিনি বলেছেন, আমি শুধু মাত্র দুটি প্লেয়ারকে আলাদা করার চেষ্টা করেছি। মাঠের মধ্যে যেন কোন রকম অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে তার জন্য দৌড়ে এসে রবীচন্দ্রন অশ্বিনকে বুঝিয়ে বাইরে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেছি। এখানে আমার মনে হয় না, এই ঘটনা ঘটার জন্য আমি কোন রকম ভাবে দায়ী। আমি শুধুমাত্র ঘটনার সমাধান করার চেষ্টা করেছি।

Related Articles

Back to top button