Cricket NewsIPL League

Gautam Gambhir: তৃতীয় আম্পায়ারের সিদ্ধান্তে ক্ষোভ প্রকাশ গৌতম গম্ভীরের, পাড়িক্কলের আউট নিয়ে মহাবিতর্ক

আম্পায়ারের ভুল সিদ্ধান্তে ম্যাচ হাতছাড়া হয় পাঞ্জাব কিংসের। ঐদিন টসে জিতে প্রথমে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নেয় রয়েল চ্যালেঞ্জার ব্যাঙ্গালোরের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। নির্ধারিত কুড়ি ওভার ব্যাটিং করে তারা ৭ উইকেট হারিয়ে ১৬৪ রান সংগ্রহ করতে সক্ষম হয়। ম্যাচটিতে পাঞ্জাব কিংস মাত্র ৬ রানে পরাজিত হয়।

আইপিএলের আসরের ৪৮ তম ম্যাচে তীব্র অসন্তোষ জানিয়েছেন ভারতীয় দলের প্রাক্তন ব্যাটসম্যান গৌতম গম্ভীর। তৃতীয় আম্পায়ারের সিদ্ধান্তের কঠোর সমালোচনা করেছেন তিনি। রবিবার দিনের দ্বিতীয় খেলায় পরস্পরের মুখোমুখি হয় রয়েল চ্যালেঞ্জার ব্যাঙ্গালোর এবং পাঞ্জাব কিংস। ওই খেলাটি পাঞ্জাব কিংসের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ ছিল। সেরা চারে প্রবেশের জন্য দুর্দান্ত সুযোগ ছিল কে এল রাহুলের হাতে। কিন্তু আম্পায়ারের ভুল সিদ্ধান্তে ম্যাচ হাতছাড়া হয় পাঞ্জাব কিংসের। ঐদিন টসে জিতে প্রথমে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নেয় রয়েল চ্যালেঞ্জার ব্যাঙ্গালোরের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। নির্ধারিত কুড়ি ওভার ব্যাটিং করে তারা ৭ উইকেট হারিয়ে ১৬৪ রান সংগ্রহ করতে সক্ষম হয়। ম্যাচটিতে পাঞ্জাব কিংস মাত্র ৬ রানে পরাজিত হয়।

রয়েল চ্যালেঞ্জার ব্যাঙ্গালরের ওপেনিং জুটিতে ব্যাট করতে নামেন বিরাট কোহলি ও দেবদত্ত পাড়িক্কল। পাঞ্জাব কিংসের অন্যতম সেরা স্পিনার রবি বিষ্নুই এর বলে সুইপ শট খেলতে গিয়ে বল ব্যাটের সাথে সঙ্গতি হারান দেবদত্ত পাড়িক্কল। উইকেট-রক্ষক কে এল রাহুল বুঝতে পারেন বলটি গ্লাভসে লেগে তার হাতে তালুবন্দি হয়েছে। তিনি জোর আবেদন জানান মাঠের মধ্যে। তখন রয়েল চ্যালেঞ্জার ব্যাঙ্গালোরের ওপেনিং ব্যাটসম্যান দেবদত্ত পাড়িক্কল ব্যক্তিগত ৩৫ রানে ব্যাটিং করছিলেন। কিন্তু কে এল রাহুলের আবেদনে সারা দেননি অনফিল্ড আম্পায়ার। কে এল রাহুল শতভাগ বুঝেছিলেন বলটি অবশ্যই দেবদত্ত পাড়িক্কলের গ্লাভস স্পর্শ করেছে।

তিনি অনফিল্ড আম্পায়ারের সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে রিভিউ নেওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন। ঐদিন মাঠে তৃতীয় আম্পায়ার হিসেবে কর্মরত ছিলেন কে শ্রীনিবাসন। তিনি বার বার পর্যবেক্ষণ করে অনফিল্ড আম্পায়ারকে তার সিদ্ধান্তে অটল থাকার পরামর্শ দেন। আর আম্পায়ারের এই সিদ্ধান্ত রীতিমত অবাক করে দেয় ধারাভাষ্য রুমে বসে থাকা গৌতম গম্ভীর, আকাশ চোপড়াসহ হাজারো ক্রিকেটপ্রেমীদের। কারণ থার্ড আম্পায়ার পর্যবেক্ষণ করার সময় স্পষ্ট দেখা গিয়েছিল বলটি গ্লাভস স্পর্শ করে কে এল রাহুলের হাতে জমা পড়েছে। তৃতীয় আম্পায়ারের এই সিদ্ধান্তের তীব্র সমালোচনা করেন গৌতম গম্ভীর। তিনি বলেন, অন স্ক্রীন ভিডিও দেখে তার পরেও ভুল সিদ্ধান্ত। এটি নিঃসন্দেহে তৃতীয় আম্পায়ারের গাফিলতি।

এমনকি হাজারো ক্রিকেটপ্রেমীরা একাধিক টুইটের মাধ্যমে জানান, কে শ্রীনিবাসনের আম্পায়ার হিসেবে কাজ করার দক্ষতা নেই। ধারাভাষ্য রুমে বসে থাকা আকাশ চোপড়া মন্তব্য করেন, বল যখন গ্লাভসে লেগে যায় তখন আল্ট্রা-এজে অনেকটাই কম নড়াচড়া করে। কিন্তু এখানে স্পষ্ট দেখা গেছে বল গ্লাভসে লেগে উইকেটরক্ষকের হাতে গিয়েছে। এটি পাঞ্জাব কিংসের দুর্ভাগ্য ছাড়া আর কিছুই নয়। উল্লেখ্য, ওই ম্যাচটিতে দেবদত্ত পাড়িক্কল ব্যক্তিগত ৪০ রান করে উইকেট রক্ষকের হাতে ক্যাচ দিয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন। কিন্তু তীব্র সমালোচনার সম্মুখীন হয়েছেন কর্মরত তৃতীয় আম্পায়ার কে শ্রীনিবাসন।

Related Articles

Back to top button