Cricket NewsIPL League

Gautam Gambhir: থার্ড আম্পায়ারের সিদ্ধান্তে ক্ষোভ, রাহুল ত্রিপাঠীর ধরা ক্যাচ নিয়ে মুখ খুললেন গৌতম গম্ভীর

নিঃসন্দেহে রাহুল ত্রিপাঠীর তালুবন্দি ক্যাচটি বৈধ ছিল। অন্তত রিপ্লেতে সেটাই দেখছিলাম আমরা। আমি সত্যিই হতবাক কিভাবে সেটি অবৈধ ক্যাচ হতে পারে দেখে। বলের নিচে রাহুল ত্রিপাঠীর আংগুল ছিল। তাহলে কিভাবে বলটি মাটি স্পর্শ করল।

ভারতীয় জাতীয় দলের প্রাক্তন ওপেনার তথা কলকাতা নাইট রাইডার্সের প্রাক্তন অধিনায়ক গৌতম গম্ভীর এবার প্রকাশ্যে ক্ষোভ প্রকাশ করলেন। তিনি আম্পায়ারের সিদ্ধান্তে অসম্মতি জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ভুল সিদ্ধান্ত কোনো একটি দলকে পুরো টুর্নামেন্ট থেকে বের করে দিতে পারে। এজন্য অবশ্যই সঠিক নির্ণয় নেওয়া প্রয়োজন। কিন্তু গতকালের ম্যাচে কে এল রাহুলের ক্যাচ প্রসঙ্গে থার্ড আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে পারছি না। নিঃসন্দেহে রাহুল ত্রিপাঠীর তালুবন্দি ক্যাচটি বৈধ ছিল। অন্তত রিপ্লেতে সেটাই দেখছিলাম আমরা। আমি সত্যিই হতবাক কিভাবে সেটি অবৈধ ক্যাচ হতে পারে দেখে। বলের নিচে রাহুল ত্রিপাঠীর আংগুল ছিল। তাহলে কিভাবে বলটি মাটি স্পর্শ করল।

একটি ভুল সিদ্ধান্ত একটি দলকে পুরো টুর্নামেন্ট থেকে বের করে দিতে পারে। আমার মনে হয়, থার্ড আম্পায়ারের আরো কয়েকটি অ্যাঙ্গেল থেকে পর্যবেক্ষণ করা উচিত ছিল। যদি ওই মুহূর্তে কে এল রাহুল আউট হতেন তাহলে খেলার চিত্রটা হয়তো বদলে যেতে পারত। ১৯.৩ বলে তিনি পুল শট খেলতে গিয়ে রাহুল ত্রিপাঠীর হাতে ক্যাচ দিয়ে বসেন। যখন খেলা ছিল চরম উত্তেজনাপূর্ণ। যদি তিনি আউট হিসেবে নির্ণীত হতেন তাহলে কলকাতা নাইট রাইডার্স খেলায় ফেরার আরেকটি সুযোগ পেয়ে যেত। কারণ পাঞ্জাব কিংস রাজস্থান রয়েলসের বিরুদ্ধে শেষ ওভারে ৪ রান সংগ্রহ করতে ব্যর্থ হয়েছিল। সে ক্ষেত্রে পাঞ্জাব কিংসের মধ্যে সেই ভীতি আবারও দেখা যেত। তখন সেই সুযোগটি নিতে পারতো কলকাতা নাইট রাইডার্স। এই নির্ণয়টি সারা জীবন ক্রিকেট ইতিহাসে পরিচিত থাকবে।

উল্লেখ্য, গতকাল পাঞ্জাব কিংস কলকাতা নাইট রাইডার্সের বিরুদ্ধে ৫ উইকেটে জয় লাভ করে। বর্তমানে দুই দলই ১০ পয়েন্ট সংগ্রহ করে পয়েন্টস টেবিলে চতুর্থ এবং পঞ্চম স্থানে রয়েছে। কলকাতা নাইট রাইডার্সের অধিনায়ক ইয়ন মরগানকে রহুলের তালুবন্দি ক্যাচটি নিয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি উত্তর দেন, আমরা দ্বিতীয়বার খেলায় ফেরার একটা সুযোগ পেয়ে গিয়েছিলাম। দেখে যতদূর মনে হয়েছিল আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত আমাদের দিকেই থাকবে। রাহুল ত্রিপাঠীও যথেষ্ট আত্মনির্ভর ছিল এ ব্যাপারে। কিন্তু তৃতীয় আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত আমরা সত্যিই বিস্মিত হয়েছি। এই একটি ক্যাচে খেলার নির্ণয় আমাদের দিকেও আসতে পারতো। কিন্তু আম্পায়ারের নির্ণয় আমাদের মেনে নিতে বাধ্য আমরা। হয়তো এর পরিপ্রেক্ষিতে আমরা পাঞ্জাবের সামনে বিগত ম্যাচটিতে পরাজিত হয়েছি। তবে প্লে-অফে ওঠার এখনো সুযোগ রয়েছে আমাদের কাছে। সেই সুযোগটি কাজে লাগাতে হবে আমাদের।

Related Articles

Back to top button