IPL 2020Cricket

সিএসকে ম্যাচে মর্গ্যানের অধিনায়কত্ব নিয়েও ক্ষোভ ভারতের এই প্রাক্তন ক্রিকেটারের

দলের খারাপ পারফরম্যান্সের জন্য অধিনায়কের পদ থেকে সরে দাঁড়িয়েছিলেন দীনেশ কার্তিক। টুর্নামেন্টের মাঝেই তিনি সরে দাঁড়ানোয় অধিনায়ক হন ইয়ন মর্গ্যান। কিন্তু বৃহস্পতিবার চেন্নাই সুপার কিংসের বিরুদ্ধে কলকাতা নাইট রাইডার্সের হারের পর তাঁর নেতৃত্ব নিয়েও প্রশ্ন উঠে গেল। প্রাক্তন ভারতীয় স্পিনার প্রজ্ঞান ওঝা তো রীতিমতো তোপ দাগলেন বিশ্বজয়ী ক্যাপ্টেনের বিরুদ্ধে। চেন্নাইয়ের কাছে হারের কারণ হিসেবে অধিনায়কের দুটি ভুলের কথা তুলে ধরলেন তিনি। সেই ভুলটা তিনি তার টুইটারে পোস্ট করে টুইট করেন।

দুবাইয়ে ধোনির চেন্নাই সুপার কিংসের বিরুদ্ধে জিততে পারলে প্লে-অফের পথ প্রশস্ত হত কিং খানের দলের। কিন্তু ইতিমধ্যে আইপিএল থেকে ছিটকে যাওয়া দলই মরণ কামড় দিল নাইটদের। ৬ উইকেটে জেতে চেন্নাই। আর তারপরই মর্গ্যানের অধিনায়কত্বের কাটাছেঁড়া শুরু হয়। ওঝার মতে, রিংকু সিংকে চার নম্বরে ব্যাট করতে নামানো একেবারেই সঠিক সিদ্ধান্ত ছিল না মর্গ্যানের। পাশাপাশি দশম ওভারে নীতীশ রানার হাতে বল তুলে দেওয়াও এদিনের হারের অন্যতম কারণ। মর্গ্যানের আগে ব্যাট হাত নেমে চূড়ান্ত ব্যর্থ হন রিংকু। এদিকে, রান তাড়া করতে নেমে দশম ওভারে চেন্নাই তুলে নেয় ১৬ রান। আর সেটাই যেন ম্যাচের টার্নিং পয়েন্ট হয়ে দাঁড়ায়।

ওঝার কথায়, “আপনার হাতে মর্গ্যান, কার্তিক আর রাহুল ত্রিপাঠী রয়েছেন। তিনজনই নিয়মিত খেলছেন। সেখানে তরুণ রিংকু সিংকে নিজের প্রথম ম্যাচেই চার নম্বরে নামানোর কী মানে? যে ১১টা বল খেলে আউট হয়ে গেল। ১১টা বলই ওই তিন ব্যাটসম্যান খেললে অন্তত ১৫-২০ কিংবা তার বেশি রান আসত। তাতে কেকেআরের স্কোরবোর্ড আরও শক্তপক্ত হত। আর নীতীশ রানাকে দিয়ে বল করানোরও কোনও দরকার ছিল না। একজন অফ-স্পিনারকে ডান-হাতি রায়ডু ও ঋতুরাজ গায়কোয়াড়ের সামনে ফেলার কোনও মানেই হয় না।”

Related Articles

Back to top button