IPL League

দূরন্ত রোহিত, বুমরাহ, হার দিয়ে শুরু করল কেকেআর

শুরুটা ভালো হোলনা কোলকাতার। প্রথম ম্যাচেই হারের মুখোমুখি হতে হল তাদের। বুধবার টসে জিতে বোলিং করার সিদ্ধান্ত নেয় কলকাতা। শুরুটা ভালোই হয়। ম্যাচের দ্বিতীয় ওভারেই ডি কক কে ড্রেসিংরুমে ফেরৎ পাঠান শিবম মাভি। কিন্তু দুরন্ত প্রত্যাবর্তন করে মুম্বাই। ৯০ রানের পার্টনারশিপ হয় রোহিত শর্মা এবং সূর্যাকুমার যাদবের মধ্যে। এরপর আর ম্যাচে ফিরতে পারেনি কলকাতা। একা হাতে কোলকাতার বোলারদের ছত্রভঙ্গ করে দেন রোহিত। ৫৪ বল খেলে ৮০ রান করেন মুম্বাই অধিনায়ক।যার মধ্যে ছিলো ছ’টি ছয় এবং তিনটি চার।শিবম মাভি ছাড়া আর কোনো বোলার ই টিকতে পারেনি মুম্বাইয়ের সামনে। এমনকি অজি তারকা প্যাট কামিন্সও ৩ ওভারে ৫০ রান দেন। মুম্বাইয়ের সূর্যাকুমার যাদবও ২৮ বলে ৪৭ রানের গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস খেলেন। শেষ পর্যন্ত কুড়ি ওভার শেষে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৯৫ রান করে মুম্বাই।

এই বিশাল রান তাড়া করতে নেমে মাত্র ২৫ রানের মধ্যে আউট হয়ে ড্রেসিংরুমে ফিরে যান ওপেনার সুনীল নারিন এবং শুভমান গিল। এরপর অধিনায়ক দীনেশ কার্তিক তিন নাম্বারে এসে ২৩ বলে ৩০ রানের ঝোড়ো ইনিংস খেলে দলকে বাঁচানোর চেষ্টা করলেও বাকিরা ব্যার্থ হন। সমগ্র কেকেআর এর আশা যায় উপর ছিল সেই আন্দ্রে রাসেলও ব্যার্থ হন।দুর্দান্ত একটি বলে তাঁকে বোল্ড করেন জশপ্রীত বুমরাহ। ১১ বলে ১১ রান করে ফিরে যান রাসেল। ওই একই ওভারে বুমরাহ ফেরান ইয়ন মর্গানকেও। তখনই ম্যাচ পুরোপুরিভাবে নিজেদের পকেটে পুরে নেয় মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। শেষে অবশ্য প্যাট কামিন্স ১২ বলে ৩৩ রানের একটি ঝোড়ো ইনিংস খেলেন। কিন্তু ম্যাচ ততক্ষনে হাত থেকে বেরিয়ে গেছে।

শেষ পর্যন্ত ৪৯ রানে জয়ী হয় মুম্বাই। ম্যাচের পর কলকাতার অধিনায়ককে হারের ব্যাপারে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বলেন যে “দলকে ব্যাটিং এবং বোলিং উভয় বিষয়েই আরো ভালো করতে হবে। ছেলেরা সবাই উপলব্ধি করতে পেরেছে যে তারা কোন জায়গাগুলোতে আরো ভালো করতে পারত। মর্গান এবং কামিন্স সবেমাত্র কোয়ারেন্টাইন পর্ব শেষ করেছেন।তাই এই গরমে খেলতে এবং পরিবেশের সঙ্গে মানিয়ে নিতে তাদের অসুবিধা হচ্ছিল। তবে সব ছেলেরাই ভালো প্রচেষ্টা করেছে।” অন্যদিকে নিজেদের প্রথম জয়ের ফলে খুশি গোটা মুম্বাই শিবির।বিধ্বংসী ইনিংস খেলার জন্য ম্যাচের সেরা নির্বাচিত হন মুম্বাই অধিনায়ক রোহিত শর্মা।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:
মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স: ১৯৫/৫(২০)। রোহিত ৮০(৫৪)। মাভি ৪-১-৩২-২
কলকাতা নাইট রাইডার্স: ১৪৬/৯(২০) কামিন্স ৩৩(১২)।প্যাটিনসন ৪-০-২৫-২

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button