IPL 2020

সমালোচকদের জবাব দিলেন কামিন্স, নাইট বোলারের খেলায় মুগ্ধ যুবরাজ

‌প্রথম ম্যাচে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বিরুদ্ধে বল হাতে দলকে হতাশ করেছিলেন প্যাট কামিন্স। ৩ ওভার বল করে দিয়েছিলেন ৫০ রান। তার পরেই সবাই কামিন্স এর সমালোচনা শুরু করেন। কেউ বলছিলেন, সাড়ে পনেরো কোটি জলে গেল। কেউ আবার বলেছিলেন, শাহরুখ খান ভাবছেন কী ভুল করলেন। এই নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতেও শুরু হয় ট্রোলিং। মুম্বাই ম্যাচে নাইট অধিনায়ক দীনেশ কার্তিক তাঁকে দিয়ে পুরো চার ওভার বল ও করাননি।কিন্তু গতকাল আবু ধাবিতে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে দেখা গেল অন্য এক প্যাট কামিন্সকে। বুঝিয়ে দিলেন তাঁর উপর আস্থা রেখে কোনো ভুল করেনি কেকেআর। মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে যে দিন খেলতে নেমেছিলেন, সে দিনই বিকেলে কামিন্সের কোযারান্টিন পর্ব শেষ হয়েছিল, এবং সন্ধ্যায় তাকে মাঠে নামতে হয়। ফলে মাঠের পরিবেশের সঙ্গে মানিয়ে নিতে পারেননি তিনি। যার উল্লেখ অধিনায়ক দীনেশ কার্তিক সেদিন ই করেছিলেন। সে দিন ব্যর্থ হয়েছিলেন কামিন্স।

সমালোচকদের নিন্দার আঁচে ভিতরে ভিতরে জ্বলছিলেন তিনি। তাই দ্বিতীয় ম্যাচে নিন্দুকদের জবাব দিলেন অজি পেসার। বর্তমানে সীমিত ওভারের ক্রিকেটে বিশ্বের সেরা দুই ধ্বংসাত্মক ব্যাটসম্যান ডেভিড ওয়ার্নার এবং জনি বেয়ারস্টোকে কোনো সুযোগই দেননি। কামিন্সের করা বিষাক্ত ডেলিভারি গুলোর জবাব ছিল না দুজনের কারো কাছেই। জাতীয় দলের সতীর্থ হবার কারনে কামিন্স এর প্রতি পদক্ষেপের সঙ্গে পূর্বপরিচিত ওয়ার্নার।কিন্তু তাঁকেও ঝামেলায় ফেললেন কামিন্স। তাঁর প্রথম তিন ওভারই জয়ের ভীত গড়ে দেয় কলকাতার জন্য। এদিন বিষাক্ত অফকাটারে উড়িয়ে দিলেন বেয়ারস্টোর স্টাম্প।

ঠিক তার আগের বলেই রিভিউ নিয়ে জীবন বাঁচিয়েছিলেন তিনি। এ দিন চার ওভারে তিনি মাত্র ১৯ রান দেন। আগের দিন যে সোশ্যাল মিডিয়া কামিনসের সমালোচনায় সরব হয়েছিল ,আজ সেখানেই দেখা গেল তাঁর প্রশংসার ঝড়। ভারতের প্রাক্তন অলরাউন্ডার যুবরাজ সিংহ কামিন্সের প্রশংসা করে  টুইট করেন, ‘‘দুর্দান্ত ভাবে ফিরে এল প্যাট কামিন্স। প্রথম ম্যাচে মার খাওয়ার পর ,খুব দ্রুত নিজের লেন্থ পরিবর্তন করে সানরাইজার্স ব্যাটসম্যানদের উপরে চাপ প্রয়োগ করে গেল। এটা তরুণ ফাস্ট বোলারদের জন্য একটা শিক্ষনীয় বিষয়। দারুণ বোলারের এটাই পরিচয়।’’

Related Articles

Back to top button