Cricket NewsIPL League

KKR Vs RR: রাজস্থানের বিরুদ্ধে ম্যাচ জেতার সাথে সাথে স্বপ্নভঙ্গ মুম্বাইয়ের! প্লে-অফে জায়গা নিশ্চিত করলো কলকাতা

চলতি আইপিএলের সবচেয়ে উত্তেজনাপূর্ণ ম্যাচে আজ ছেলেখেলা করে রাজস্থান রয়েলসকে পরাজিত করল কলকাতা নাইট রাইডার্স। কলকাতা নাইট রাইডার্সের প্লে অফে উঠার জন্য আজকের ম্যাচে জয় নিশ্চিত করা প্রয়োজন ছিল। অন্যথায় ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স সানরাইজ হায়দ্রাবাদের বিরুদ্ধে জয় লাভ করে চতুর্থ দল হিসেবে জায়গা করে নিতো। কিন্তু এবারের আইপিএলে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের স্বপ্ন ভঙ্গ করে প্লে-অফে চতুর্থ দল হিসেবে নিজের স্থান পাকা করে ফেলল কলকাতা নাইট রাইডার্স। সামনের ম্যাচে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স যত ব্যবধানে জিতুক না কেন প্লে-অফে পৌঁছানো এবারের আইপিএলে তাদের জন্য আর সম্ভব নয়। দিল্লি ক্যাপিটালস, চেন্নাই সুপার কিংস, রয়েল চ্যালেঞ্জার ব্যাঙ্গালোর এবং কলকাতা নাইট রাইডার্স এবারের আইপিএলে প্লে-অফে মুখোমুখি হবে।

আজকের অত্যন্ত কলকাতার জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে রাজস্থান রয়েলস টসে জিতে বোলিং করার সিদ্ধান্ত নেয়। সঞ্জু স্যামসনের আহবানে ব্যাটিং করতে নেমে কলকাতা নাইট রাইডার্স। ওপেনিং জুটিতে ধীর শুরু হলেও লম্বা ইনিংস খেলেন শুভমান গিল এবং ভেঙ্কটেশ আইয়ার। শুভমান গিল ব্যক্তিগত ৫৬ এবং ভেঙ্কটেশ আইয়ার ব্যক্তিগত ৩৮ রানের ইনিংস খেলেন। এছাড়া রাহুল ত্রিপাঠী ২১ রানের ছোট্ট ইনিংস খেলেন। রাজস্থান রয়েলসের হয়ে ক্রিস মরিস, চেতন সাকারিয়া, রাহুল তেওয়াতিয়া এবং গেলেন ফিলিপস একটি করে উইকেট দখল করেন। কলকাতা নাইট রাইডার্স নির্ধারিত কুড়ি ওভার ব্যাটিং করে ৪ উইকেট হারিয়ে ১৭২ রানের বিশাল লক্ষ্যমাত্রা স্থির করে।

বিশাল লক্ষ্যমাত্রা অতিক্রম করতে গিয়ে প্রথমেই পিছলে যায় রাজস্থান রয়েলসের ওপেনিং জুটি। লক্ষ্যমাত্রার চাপে রাজস্থান রয়েলসের ক্রিকেটাররা একে একে প্যাভিলিয়নে ফিরতে থাকে। যেন আসা-যাওয়াই তাদের জন্য নির্ধারিত করে রেখেছে কলকাতা নাইট রাইডার্স। দলের হয়ে শিভাম দুবে ১৮ রানের ইনিংস খেলেন। রাজস্থান রয়েলসের হয়ে একাই লড়াই করেছেন রাহুল তেওয়াতিয়া। তিনি ব্যক্তিগত ৪৪ রানের ইনিংস খেলেন। রাজস্থান রয়েলস সবকটি উইকেট হারিয়ে ৮৫ রান সংগ্রহ করতে সক্ষম হয়। ৮৬ রানের বিশাল ব্যবধানে রাজস্থান রয়েলসকে পরাজিত করে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের স্বপ্ন ভঙ্গ করে প্লে-অফে জায়গা নিশ্চিত করেছে কলকাতা নাইট রাইডার্স। দলের হয়ে শিভম মাভি দলের হয়ে মূল্যবান চারটি উইকেট দখল করেন। এছাড়া লকি ফার্গুসন ব্যক্তিগত তিনটি উইকেট দখল করেন।

Related Articles

Back to top button