IPL League

২০২১ আইপিএলে টাইটেল স্পনসর হিসেবে থাকছে না Dream 11, আসছে এই চিনা সংস্থা

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগ (আইপিএল) ২০২০ তে অনুপস্থিত থাকার পর, ভিভো ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগের আসন্ন সংস্করণের জন্য টাইটেল স্পনসর হিসেবে ফিরে আসছে। চেন্নাইয়ে অনুষ্ঠিত আইপিএল ২০২১ মিনি নিলামের সময় আইপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের চেয়ারম্যান ব্রিজেশ প্যাটেল এই সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেন। চীনা মোবাইল প্রস্তুতকারক টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে যাওয়ার পর ড্রিম ইলেভেন আইপিএল ২০২০ এর টাইটেল স্পনসর হিসেবে আসে। আইপিএল নিলামের স্বাগত ভাষণের সময় স্টার স্পোর্টসে ব্রিজেশ বলেন, “টাইটেল স্পনসর হিসেবে ভিভো আবার ফিরে এসেছে, আইপিএলের ১৪ তম সংস্করণটি ভিভো আইপিএল ২০২১ হিসেবে ঘোষণা করা হবে, ভিভোকে স্বাগতম।”

২০২০ সালের জুন মাসে ভারত-চীন সীমান্তে সামরিক সংঘর্ষের পর কর্পোরেটের সাথে টুর্নামেন্টের সম্পৃক্ততা নিয়ে জনগণের ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। এমত অবস্থায় ভিভো বিসিসিআই এর কথায় টাইটেল স্পনসরশিপ থেকে প্রত্যাহার করে নেয়। এরপর বিসিসিআই টাইটেল স্পনসরের জন্য নতুন নিলামের আহ্বান জানায় এবং ড্রিম ইলেভেন সংযুক্ত আরব আমিরাতে আইপিএল এর ১৩ তম সংস্করণের জন্য চুক্তি লাভ করে। যাইহোক,শোনা যায়, ভিভো ড্রিম ইলেভেন বিসিসিআইকে যা অর্থ দিয়েছে তার দ্বিগুণ অর্থ প্রদান করে যে ভিভো টাইটেল স্পনসর হিসেবে ফিরে আসছে।

ভিভো ২০১৭-২০২২ সময়কালে প্রায় ৩৪১ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের বিনিময়ে স্পন্সরশীপ অধিকার লাভ করেছে। ২০২০ সালের আগস্ট মাসে বিসিসিআই এক দফা বিবৃতি দিয়ে চুক্তিটি স্থগিত করে, যেখানে লেখা ছিল: “বিসিসিআই এবং ভিভো মোবাইল ইন্ডিয়া প্রাইভেট লিমিটেড ২০২০ সালে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগের জন্য তাদের অংশীদারিত্ব স্থগিত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।” এরপর একটি টাইটেল স্পনসর আনার জন্য একটি নতুন প্রক্রিয়া পরিচালিত হয়, যেখানে ড্রিম ইলেভেন ভারতীয় কিট স্পনসর বাইজুস সহ আরও কয়েকজন নিলামকারইকে টেক্কা দিয়ে ২২২ কোটি রুপির (প্রায় ২৯.৭ মিলিয়ন মার্কিন ডলার) বিনিময়ে টাইটেল স্পনসরের অধিকার লাভ করে। যাইহোক এই বছর ড্রিম ইলেভেন কে টেক্কা দিয়ে ভিভো আবার টাইটেল স্পনসরশিপে ফিরছে এবং ড্রিম ইলেভেন এর থেকে অনেক বেশি অর্থ প্রদান করে বিসিসিআই সংস্থা থেকে এই চুক্তি আদায় করে ভিভো।

আরও পড়ুন

Back to top button